জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে জাতীয় সংসদ নির্বাচন: ইসি

সিলেটের সময় ডেস্ক :

 

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আগামী বছরের (২০২৪) প্রথম সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মো. আনিছুর রহমান বলেছেন, বলা যায় জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তবে আমরা এখনও ভোটগ্রহণের তারিখ ঠিক করিনি।

শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ (টিওটি) কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল প্রথম ধাপে এই কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এ সময় চার নির্বাচন কমিশনার ও ইসি সচিব উপস্থিত ছিলেন।

ইসি আনিছুর বলেন, ‘এখনও আমরা তারিখ ঠিক করিনি। দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম এর মাধ্যমে শুরু হয়ে গেল। এ কারণে আমরা সবাই এখানে আছি।’

প্রতি ব্যাচে শতাধিক প্রশিক্ষক নিয়ে তিন হাজার ২০০ জনকে টিওটি দেওয়া হবে। শনিবার থেকে শুরু হওয়া নির্বাচনি কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে। ইসির প্রশিক্ষিত সাড়ে তিন হাজার এক্সপার্ট মাঠ পর্যায়ের প্রায় ৯ লাখ ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ দেবেন।

অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা বলেন, ‘আইনের মধ্যে থাকলেই সুষ্ঠু এবং ঝুঁকিমুক্ত ভোট করা সম্ভব। শতভাগ পেশাদারিত্ব বজায় রেখে জাতিকে সুন্দর নির্বাচন উপহার দেওয়ার জন্য নির্বাচনি কর্মকর্তাদের কাজ করতে হবে।’

ইসির আরেক কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আহসান হাবিব বলেন, ‘কঠিন প্রশিক্ষণ সহজ যুদ্ধ- এই বাক্য মনে রেখে ভোটের মাঠে কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে।’

উল্লেখ্য, চলতি একাদশ সংসদের মেয়াদ পাঁচ বছর পূর্ণ হবে ২০২৪ সালের ২৯ জানুয়ারি। সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সংসদ বহাল রেখে আগামী নির্বাচন করতে হলে, তা করতে হবে ২০২৪ সালের ২৯ জানুয়ারি থেকে আগের ৯০ দিনের মধ্যে। অর্থাৎ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ক্ষণগণনা শুরু হবে চলতি বছরের ১ নভেম্বর থেকে।

গত ৯ আগস্ট নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান জানান, আগামী নভেম্বরে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। তিনি বলেন, প্রার্থীরা অনলাইনে ও সশরীরে মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন। সেদিন তিনি আরও বলেন, ‘আমরা সাধারণত ভোটের ৪০-৪৫ দিন আগে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করি। নভেম্বরের যেকোনো দিন তফসিল ঘোষণা করা হবে।’

এ বিভাগের অন্যান্য