শাবিতে স্মার্ট ল্যাব অটোমেশন সেবা

শাবি প্রতিনিধি : ঘরে বসে মাটি, পানি, বাতাস এবং নির্মাণ সামগ্রী রড, বালি, সিমেন্ট, পাথর ইত্যাদি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে মান যাচাইয়ের সেবা অনলাইনে পেতে দেশে প্রথমবারের মতো শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি) চালু হয়েছে স্মার্ট ল্যাব অটোমেশন সেবা। এখানে অত্যাধুনিক এবং স্বয়ংক্রিয় ল্যাব ম্যানেজমেন্টের মাধ্যমে সেবাটি দেওয়া হয়। ফলে গ্রাহকরা ঘরে বসেই অনলাইনের মাধ্যমে সেবা পাওয়া এবং বিল পরিশোধ করতে পারবেন। সিভিল এবং এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ক যেকোনো পরীক্ষা এই ল্যাবে করাতে পারবেন।

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং (সিইই) বিভাগের অধীনস্থ সেন্টার ফর রিসার্চ, টেস্টিং অ্যান্ড কনসালটেন্সি (সিআরটিসি) বাণিজ্যিকভাবে এই স্মার্ট ল্যাব অটোমেশন সেবা চালু করেছে। চলতি বছরের জানুয়ারিতে পরীক্ষামূলকভাবে প্রতিষ্ঠিত এই স্মার্ট ল্যাবের মাধ্যমে এপর্যন্ত ৪৬৫ জন গ্রাহক সফলভাবে অনলাইনের মাধ্যমে সেবাটি গ্রহণ করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এ সেবার উদ্বোধন করেছেন। ২০০৪ সালে শাবিতে যাত্রা শুরু করা সিআরটিসি প্রতিষ্ঠার পর থেকেই সিলেট বিভাগসহ সারাদেশে বিশ্বস্ততার সাথে সেবা দিয়ে আসছে।

এখন বাংলাদেশের যেকোনো জায়গা থেকে অনলাইনে স্মার্ট ল্যাব অটোমেশনের সেবা পাওয়া যাবে। এই সেবার ফলে বিশেষজ্ঞ, কর্মী এবং সেবা গ্রহণকারীদের প্রায় ৭০ শতাংশ সময় কম লাগবে এবং পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে পণ্যের মান যাচাইয়ের রিপোর্ট পরিবর্তন বা নকল করার কোনো সুযোগ নেই।

সিআরটিসির পরিচালক অধ্যাপক ড. জহির বিন আলম জানান, এটি মূলত টেস্টিং এবং কনসালটেন্সি দিয়ে থাকে। ল্যাবে মাটি, পানি, বাতাস ও নির্মাণ সামগ্রী পরীক্ষার পরে চূড়ান্ত রিপোর্টের উপর একটি ইউনিক কোড এবং একটি কিউআর কোড বসানো হয়। ফলে স্মার্ট ফোনের মাধ্যমে স্ক্যান করে অথবা সিআরটিসির ওয়েবসাইটের মাধ্যমে যেকোনো জায়গা থেকে যে-কেউ ল্যাবে পরীক্ষার রিপোর্ট যাচাই করে নিতে পারবে। এতে করে এটার গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে কোন প্রশ্ন থাকবে না। অনলাইনের মাধ্যমে সেবা দান করার ফলে অসাধু চক্র কোন ধরনের রিপোর্ট পরিবর্তন করতে পারবে না এবং গোপন করতে পারবে না।

এ বিভাগের অন্যান্য