আপা সম্বোধনে সাংবাদিকের ওপর ক্ষেপলেন চিকিৎসক

সিলেটের সময় ডেস্ক :

 

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক নারী ডাক্তারকে আপা সম্বোধন করায় দারুণ চটেছেন। তাকে আপা নয় ‘ম্যাডাম’ বলে ডাকার পরামর্শ দেন স্থানীয় এক সাংবাদিককে। স্থানীয় ওই সাংবাদিক উত্তেজিত ওই ডাক্তারের কথোপকথনের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করলে তা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়।

চটে যাওয়া ডাক্তারের নাম নিরুপমা পাল। তিনি হাসপাতালটিতে অফিসার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

এদিকে ডাক্তারের এ ধরনের আচরণে বিব্রত খোদ মানিকগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জনও।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখা গেছে, ২৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে হাসপাতালের ওই ডাক্তারের ইন্টারভিউ নিচ্ছিলেন স্থানীয় বিপ্লব শান্ত নামের এক সাংবাদিক। এ সময় সাংবাদিক ওই চিকিৎসককে প্রশ্ন করেন, আপা আপনার নাম কী? নিরুপমা পাল জানিয়ে চিকিৎসক উত্তেজিত হয়ে বলেন, আপনি আমাকে ‘আপা’ বলছেন কেন।

এ সময় পাশ থেকে আরেকজন জানতে চান তাহলে আপনাকে কী বলতে হবে ‘ম্যাডাম!’ তখন চিকিৎসক নিরুপমা পাল বলেন, হ্যাঁ অবশ্যই। তখন সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, কেন আপনাকে ‘ম্যাডাম’ বলতে হবে; এ সময় ওই নারী চিকিৎসক পাশের একজনকে বলেন আচ্ছা উনি কেন আমাকে হেরাজ করতেছেন!

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সম্প্রতি সিংগাইরে একটি মারামারির ঘটনায় আহতদের ইনজুরি সার্টিফিকেটে ভুল তথ্য দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে গত ২৪ মার্চ বিকালে স্থানীয় কয়েকজন সাংবাদকর্মী তার বক্তব্য জানতে হাসপাতালে গেলে এমন ঘটনার অবতারণা হয়।

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে চিকিৎসক নিরুপমা পালের মোবাইলে ফোন দিলে রিসিভ করেন তার স্বামী ডা. পার্থ। তিনি জানান, ভাইরাল ভিডিও নিয়ে তার স্ত্রী মানসিকভাবে কিছুটা বিপর্যস্ত। এ মুহূর্তে বিষয়টি নিয়ে আর কোনো কথা বলতে চান না।

মানিকগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. মোয়াজ্জেম আলী চৌধুরী জানান, চিকিৎসকের রেগে যাওয়ার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার বিষয়টি তিনি জেনেছেন। তিনি বলেছেন ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তবে ভবিষ্যতে যাতে এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয় ওই নারী ডাক্তারকে সেই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য