আগামী সংসদ নির্বাচনে লড়বেন তাহেরী

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

আলোচিত ইসলামি বক্তা মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরী আগামী সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে যাচ্ছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের ভাদুঘর এলাকায় ‘আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত’ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান দাওয়াতে ঈমানী বাংলাদেশ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান তাহেরী।

তবে আসন্ন সংসদ নির্বাচনে কোনও দলের হয়ে মনোনয়ন চাইবেন নাকি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়বেন সেটা নিশ্চিত করে বলেননি।   এর আগেও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল ও আশুগঞ্জ) থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ডাব প্রতীকে নির্বাচন করেছিলেন তিনি।

তবে জয় পাননি। তিনি পেয়েছিলেন ৩ হাজার ৫ ভোট।

এ আসনে ৮৩ হাজার ৯৯৭ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছিলেন বিএনপির উকিল আবদুস সাত্তার ভূঁইয়া।

সংবাদ সম্মেলনে ওয়াজ-মাহফিলে দেওয়া নিজের বক্তব্য খণ্ডিত আকারে উপস্থাপনকারী ইউটিউবারদের বিরুদ্ধে শিগগিরই আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলেও জানান তাহেরী।

সংবাদ সম্মেলনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের ১০৭ সদস্যবিশিষ্ট নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটির সভাপতি হয়েছেন কাজী মো. মহিউদ্দিন মোল্লা এবং সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত্ব-তাহেরীকে। এর আগে গত ১০ মার্চ শহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে জেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত ওই সম্মেলনে আংশিক কমিটি গঠন করা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, দেশের বিভিন্ন এলাকায় ওয়াজ-মাহফিল করেন মুফতি মুহম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরী। ওয়াজে নানা রকম কথাবার্তা, হাসিঠাট্টার কারণে তিনি আলোচিত ও সমালোচিত। যা ইউটিউবে পাওয়া যায়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তাহেরী নামেই তিনি পরিচিত। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম নেন মুফতী মুহম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত তাহেরী। তাঁর পারিবারিক ইতিহাস ও বংশগত পরিচয় নিয়ে কোনো বিতর্ক নেই। তবে তিনি তর্ক বিতর্কের মধ্য দিয়েই যাচ্ছেন। যদিও তিনি তাঁর সম্পর্কে বিতর্কের বিভিন্ন ব্যাখ্যা তিনি দিয়ে আসছেন। তার বিরুদ্ধে নাচ করার যে অভিযোগ রয়েছে তাকে তিনি ক্যামেরার কারসাজি বলে উল্লেখ করেছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য