নিউমার্কেটে সংঘর্ষ : মামলার প্রধান আসামি বিএনপি নেতা

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনায় বিস্ফোরক আইন ও পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে দুটি মামলা করা হয়েছে। মামলায় নিউমার্কেট থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি মকবুল হোসেনকে ১নম্বর আসামি করা হয়েছে। এ ছাড়া মামলায় নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী, কর্মচারী ও ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীসহ অজ্ঞাত এক হাজার ২০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ ম কাইয়ুম।

নিউমার্কেট থানা সূত্র জানায়, নিউমার্কেট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মেহেদী হাসান ও পরিদর্শক (তদন্ত) ইয়ামিন কবির বাদী হয়ে নিউমার্কেট থানায় মামলা দুটি দায়ের করেন।  এ ছাড়া সংঘর্ষে নিহত নাহিদের বাবা মো. নাদিম হোসেন বাদী হয়ে নিউমার্কেট থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন। মামলায় তিনি অজ্ঞাতনামা আসামি উল্লেখ করেন।

এর একটি মামলায় পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে ২৪ জন এজাহারনামীয়সহ ব্যবসায়ী-কর্মচারী অজ্ঞাত ৩০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। এ ছাড়া একই মামলা অজ্ঞাত হিসেবে ঢাকা কলেজের ৭০০ জন শিক্ষার্থীকে আসামি করা হয়েছে। বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে দায়ের করা অপর মামলায় অজ্ঞাত ১৫০-২০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এর আগে গত সোমবার (১৮ এপ্রিল) রাত ১২টার দিকে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সাথে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও দোকান কর্মীদের সংঘর্ষ শুরু হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টা চলে এ সংঘর্ষ। এরপর রাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলেও মঙ্গলবার সকাল ১০টার পর থেকে ফের দফায় দফায় শুরু হয় সংঘর্ষ, যা চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত। এতে উভয়পক্ষের অর্ধশতাধিক আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর। সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নাহিদ হাসান নামে এক কুরিয়ার সার্ভিস কর্মী।

অন্যদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত মো. মুরসালিন (২৪) নামে এক দোকান কর্মচারী বৃহস্পতিবার ভোরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে এ ঘটনায় দুজনের মৃত্যু হলো।

এ বিভাগের অন্যান্য