গোপনে বিয়ে, বরের বাবার হাতে প্রাণ গেল কনের নানার

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

লক্ষ্মীপুরে ছেলের বিয়ের কথায় ক্ষিপ্ত হয়ে কনের নানাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে গোলাপ সর্দার নামের এক ব্যক্তি। বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) দিবাগত মধ্যরাতে সদর উপজেলার চররমনিমোহন ইউনিয়নের মধ্য চররমনী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ছেলে তারিফ সর্দারের গোপন বিয়ের কথা জানতে পেরে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন বাবা গোলাপ সর্দার। এতে লোকজন নিয়ে গোলাপ সর্দার কনে নূপুর আক্তারের বাড়িতে গিয়ে দ্বন্দ্ব-বিবাদে জড়ান।

একপর্যায়ে নূপুরের নানা নাজিম সর্দারকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) সকালে গোলাপের বিরুদ্ধে নিহতের ছেলে আব্বাস সর্দার এ অভিযোগ করে।

পুলিশ জানায়,  নিহত নাজিম একই এলাকার মৃত হাসু সর্দারের ছেলে। অভিযুক্ত গোলাপ ওই গ্রামের বাসিন্দা নুরা সর্দারের ছেলে।

নিহতের স্বজনরা জানান, ১২ এপ্রিল তারিফ গোপনে একই এলাকার আব্বাস সর্দারের মেয়ে নূপুরকে বিয়ে করে। বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি জানাজানি হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তারিফের বাবা গোলাপ। একপর্যায়ে লোকজন নিয়ে গোলাপ কনের বাড়িতে হাজির হয়। সেখানে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে গোলাপ ও তার পক্ষের লোকজন কনের নানা নাজিমকে বেধড়ক মারধর করে। আহত অবস্থায় নাজিমকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানান, হাসপাতালে আনার আগেই নাজিম মারা গেছেন। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসীম উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। নিহতের পরিবারকে থানায় লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। তদন্ত করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য