‘আমরা চাই, বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে চলুক’

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বাংলা নববর্ষ অসাম্প্রদায়িকতা ও বাঙালি জাতীয়তাবাদের পরিচায়ক। এ দিনটিতে সে চেতনা আরো শাণিত করতে হবে। তিনি বলেন, ‘আমরা চাই, বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে আরো মাথা উঁচু করে চলুক। সে জন্য অসাম্প্রদায়িকতা ও ভ্রাতৃত্ববোধকে আরো শাণিত করে বাংলাদেশের সম্মান ও মর্যাদাকে আরো উন্নীত করতে হবে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে নেদারল্যান্ডসে আন্তর্জাতিক হর্টিকালচার এক্সিবিশনে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে বাংলা নববর্ষ উদযাপন অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি তিনি এসব কথা বলেন।

কৃষিসচিব মো. সায়েদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. রুহুল আমিন তালুকদার, হাসানুজ্জামান কল্লোল, ওয়াহিদা আক্তার ও বলাইকৃষ্ণ হাজরা, নেদারল্যান্ডসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রিয়াজ হামিদুল্লাহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নেদারল্যান্ডসের আলমেয়ারে আন্তর্জাতিক হর্টিকালচার এক্সিবিশন ‘ফ্লোরিয়েড এক্সপো-২০২২’ আয়োজনে সরকারিভাবে প্রথমবারের মতো অংশগ্রহণ করছে বাংলাদেশ। ৬ মাসব্যাপী এ প্রদর্শনী শুরু হয়েছে আজ বৃহস্পতিবার। বাংলাদেশসহ প্রায় ৩৩টি দেশ প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করছে।

আন্তর্জাতিক হর্টিকালচার এক্সিবিশন প্রতি দশকে একবার নেদারল্যান্ডসে অনুষ্ঠিত হয়। এবার বসেছে প্রদর্শনীর ৭ম আসর। এবারের প্রতিপাদ্য হলো ‘সবুজ নগর গড়ে তোলা’। এবারের প্রদর্শনীটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কারণ ফ্লোরিয়েড এক্সপো হিসেবে ২০৫০ সালের মধ্যে পৃথিবীর ৬৮% মানুষ নগরে বাস করবে। নগরকে কিভাবে আরো সবুজ, সুন্দর ও বসবাসযোগ্য করা যাবে, সে বিষয়ে উদ্ভাবন ও গ্রিন সল্যুশনস এই এক্সপোতে প্রদর্শিত হবে।

এক্সপোতে বাংলাদেশ নিজেদের উদ্ভাবন ও গ্রিন সল্যুশনস বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরবে। পাশাপাশি অন্যান্য দেশের প্রযুক্তি, উদ্ভাবন ও জ্ঞান-অভিজ্ঞতা জানার ও তা বিনিময়ের সুযোগ তৈরি হবে।

এ বিষয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, এ এক্সিবিশনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশের মর্যাদা ও সম্মান আরো নতুন মাত্রায় উন্নীত হবে। প্রদর্শনীর প্রথম দিনে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে দর্শনার্থীদের ভিড় দেখা গেছে। নববর্ষ উপলক্ষে আগত দর্শনার্থীদেরকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয়।

 

এ বিভাগের অন্যান্য