মস্তিষ্কে হাড় প্রতিস্থাপনের ১৫ দিন পর বাড়ি ফিরলেন আকিব

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

মস্তিষ্কে হাড় প্রতিস্থাপনের কারণে ১৫ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন এমবিবিএস ৬২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মাহাদি আকিব। মঙ্গলবার দুপুরে হাসপাতাল থেকে তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হলে অ্যাম্বুল্যান্স করে চট্টগ্রাম থেকে কুমিল্লায় বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।

চমেক নিউরো সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মাহফুজুল কাদের বিকেলে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মস্তিষ্কে হাড় প্রতিস্থাপনের পর পুরোপুরি সুস্থ হলে আজকে তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। আস্তে আস্তে সে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসছে।

কিছুটা সময় লাগবে। ফলোআপের জন্য এক মাস পর হাসপাতালে আসতে বলা হয়েছে। ’

আকিবের বাবা কুমিল্লার প্রবীণ শিক্ষক মোহাম্মদ গোলাম ফারুক মজুমদার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘গত ২৮ মার্চ মস্তিষ্কে জটিল অস্ত্রোপচারের (মাথার খুলি) পর আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিল আকিব। সপ্তাহখানেক আগে সেখান থেকে তাকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়। আজ দুপুরে ছাড়পত্র দিল, এখন বাড়ি নিয়ে যাচ্ছি। ফলোআপের জন্য আবার আসতে হবে। ‘

এদিকে অসুস্থ অবস্থায় আকিব এমবিবিএস প্রথম পেশাগত পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে অনুষ্ঠিত এ পরীক্ষায় গত রবিবার ফল প্রকাশিত হয়। তাতে আকিব ভালো পাস করেছেন বলে তার বাবা জানান। বাড়ি থেকে এসে ওই পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন আকিব।

উল্লেখ্য, চমেক প্রবেশদ্বারের সামনের সড়কে প্রতিপক্ষের (ছাত্রলীগের একটি পক্ষ) নৃশংস হামলায় মস্তিষ্কে গুরুতর আহত হওয়ার প্রায় পাঁচ মাস পর গত ২৮ মার্চ মাহাদি আকিবের সেই হাড়টি তার মাথায় প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। গত বছরের ৩০ অক্টোবর ধারালো দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে মস্তিষ্কে ভেঙ যাওয়া হাড় প্রথম অস্ত্রোপচারের সময় আকিবের শরীরের একটি অংশে (পেটের চামড়ার নিচে) রাখা হয়েছিল। অবশেষে সেই হাড়টি গত ২৮ মার্চ অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে আবার মাথায় প্রতিস্থাপন করা হয়।

 

এ বিভাগের অন্যান্য