শেষ দিনে জুয়েলারি এক্সপোতে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ঢল

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত বাংলাদেশ জুয়েলারি এক্সপো-২০২২-এর শেষ দিনে ঢল নেমেছে ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের। মেলার শেষ সময়ে ক্রেতারা নিজেদের পছন্দের গহনা কিনতে ছুটছেন এক স্টল থেকে অন্য স্টলে। বিক্রেতারাও পার করছেন ব্যস্ত সময়।

আজ শনিবার রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) আয়োজিত মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, দুপুর গড়াতেই মেলায় লোকসমাগম বাড়তে শুরু করে।

এরপর সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মেলা ক্রেতা ও দর্শনার্থীর পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে। দেশের ইতিহাসে এই প্রথম আয়োজিত জুয়েলারি মেলাতে দেশের শীর্ষ ব্র্যান্ডগুলোর প্রায় ৬৫টি স্টল বাহারি ডিজাইনের গহনা নিয়ে এই মেলায় অংশগ্রহণ করেছে।

মেলার স্টলগুলো ঘুরে দেখা গেছে, ক্রেতারা ভিড় করছেন নিজের পছন্দের গহনা কিনতে। কিছু স্টলে ক্রেতারা দীর্ঘ সারিতে অপেক্ষা করেছেন। বিক্রেতারা ক্রেতার চাপ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছেন।

মেলা থেকে গহনা কিনে জিতেছেন জানিয়ে নিগার সুলতানা বলেন, ‘আমি মোট সাড়ে সাত লাখ টাকার গহনা কিনেছি। এখানে গহনার মজুরি ও কোনো ভ্যাট দিতে হয়নি। শুধু স্বর্ণের দাম দিয়ে গহনা কিনেছি। সুতরাং মেলা থেকে গহনা কিনে কম করে হলেও মজুরি-ভ্যাট মিলিয়ে দেড় লাখ টাকা কমে পেয়েছি। ‘

তিনি মেলার আয়োজকদের ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, ‘এমন মেলা আমরা প্রতিবছর চাই। এক জায়গায় অনেকগুলো ব্র্যান্ড থাকায় সহজেই পছন্দের গহনা কেনা যায়। ‘

আপন জুয়েলার্সের মালিক গুলজার আহমেদ বলেন, ‘মেলায় অভাবনীয় সাড়া পেয়েছি।   বিক্রিও ভালো হচ্ছে। সুতরাং প্রথমবারের মতো আয়োজিত এই মেলা শতভাগ সফল। ‘

গত বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ জুয়েলারি এক্সপোর উদ্বোধন করা হয়। ওই দিনই মেলার আয়োজক বাজুস ঘোষণা দেয় দর্শনার্থীদের জন্য ২৫ লাখ টাকা পুরস্কারের। ১২ জনকে র‌্যাফল ড্রর মাধ্যমে এই ২৫ লাখ টাকা দেওয়া হবে। এর মধ্যে প্রথম পুরস্কার হিসেবে একজন পাবেন ১০ লাখ টাকা। দ্বিতীয় পুরস্কার হিসেবে পাঁচ লাখ টাকা পাবেন একজন। এ ছাড়া এক লাখ টাকা করে ১০ জন পাবেন পুরস্কার। আজ রাতে শেষ হবে এই মেলা।

 

এ বিভাগের অন্যান্য