সিনেমার লিংকে ক্লিক করে হারালেন ৩০ লাখ টাকা!

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত বলিউড সিনেমা ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ নিয়ে চরম উন্মাদনা দেখা গিয়েছে ভারতের সিনেপ্রেমীদের মধ্যে।
মুক্তির পর সিনেমাটির পাঁচ দিনে আয়ের রেকর্ড ৫০ কোটি রুপি ছুঁইছুঁই।

শুধু প্রেক্ষাগৃহেই নয়; মোবাইল ফোনেও সিনেমাটি দেখতে লিংক খুঁজছেন ভারতীয়রা। আর সেই সুযোগে ইন্টারনেটে প্রতারণার ফাঁদ পেতে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন হ্যাকাররা।

এমন প্রতারণা ফাঁদে আটকা পড়ে এখন পর্যন্ত ৩০ লাখ রুপি খোয়া গেছে বলে জানিয়েছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের নয়ডা থানা পুলিশ।

কলকাতার গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, এ ঘটনায় ইতিমধ্যে সতর্কবার্তা জারি করেছে নয়ডা পুলিশ।

তাতে জানানো হয়েছে, ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিনেমা ডাউনলোডের একটি ভুয়া লিঙ্ক ঘুরছে হোয়াটসঅ্যাপে। তাতে ক্লিক করলেই অজান্তে খালি হয়ে যাচ্ছে লিংকে ক্লিককারীর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট।

নয়ডা পুলিশের অতিরিক্ত ডেপুটি কমিশনার রণবিজয় সিং সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ দেখার লিংকে ক্লিক করে প্রতারণার শিকার হয়েছেন অনেকে। গত ২৪ ঘণ্টায় একই থানায় তিনটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে এ বিষয়ে। প্রতিটিতেই একই ধরনের সাইবার প্রতারণায় টাকা হারিয়েছেন ভুক্তোভোগী। যার মোট পরিমাণ ৩০ লাখ রুপি। লিংকে ক্লিক করলে ফোন হ্যাক হতে দর্শকের ব্যক্তিগত ডাটা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারকরা।

এদিকে ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিনেমা দেখতে নিষেধ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

বুধবার বিধানসভায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বাজেট বক্তৃতাকালে মমতা বলেন, ‘কেউ সিনেমা দেখতে যাবেন না। ভাইরাল ভিডিও দেখবেন না। সিনেমায় যা দেখায় তা কখনোই সত্যি নয়। তাই সেগুলো বিশ্বাস করবেন না। এগুলো সব বানানো। সিনেমা সিনেমাই। কোনো দিন সত্যি হবে না। ওদের আসলে অনেক টাকা, তাই টাকা খরচ করে এসব বানায়। দেখবেন না এসব। বিশ্বাসও করবেন না।’

‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিনেমা মূলত ১৯৯০ সালে কাশ্মীরের হিন্দু পণ্ডিতদের ওপর নির্যাতনের গল্পে নির্মিত।

ওই সময়ে জম্মু-কাশ্মীরের উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে উপত্যকা ছাড়তে শুরু করে শত শদ কাশ্মীরি পণ্ডিতদের পরিবার। ঠাঁই হয় দেশের বিভিন্ন প্রান্তের শরণার্থী শিবিরে। তাদের ওই দুর্দশার কাহিনি নিয়েই তৈরি হয়েছে ‘দ্য কাশ্মীরি ফাইলস’।

বিবেক অগ্নিহোত্রী রচিত ও পরিচালিত এ সিনেমা মুক্তির পর চার দিনে ৪২.২০ কোটি রুপি আয়ের রেকর্ড গড়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, সপ্তাহ শেষে ৭৫ কোটি রুপি আয় করতে পারে সিনেমাটি।

সিনেমাটির মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন অনুপম খের, মিঠুন চক্রবর্তী, দর্শন কুমার ও পল্লবী যোশি, ভাষা সুম্বালি, চিন্ময় মন্ডলেকর, পুনীত ইসার, মৃণাল কুলকার্নি, অতুল শ্রীবাস্তব এবং পৃথ্বীরাজ সারনায়েক।

এ বিভাগের অন্যান্য