ছেলের অপহরণ দাবি করে আইনজীবীর সঙ্গে প্রতারণা!

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

অদ্ভূত প্রতারণার খপ্পড়ে পড়েছিলেন সিলেট জেলা বারের এক আইনজীবী। যদিও নিজের বুদ্ধিমত্তায় তিনি বেঁচে গেছেন। এ ব্যাপারে সিলেট জেলা বারের আইনজীবী মো. জালাল উদ্দিন কোতোয়ালি থানায় সাধারণ ডায়রিও করেছেন।
জালাল উদ্দিন জানান, মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) একটি মামলায় আদালতে শুনানিতে অংশ নিচ্ছিলেন তিনি। বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে তার মোবাইল ফোনে অপরিচিত একটি নাম্বার থেকে কল আসে। অপর প্রান্ত থেকে বলা হয়, ‘আমার ছেলে তাদের হেফাজতে রয়েছে। ছেলেকে ছাড়িয়ে নেওয়ার জন্য মোটা অংকের টাকা দিতে হবে।

জালাল উদ্দিন বলেন, কথিত অপহরণকারীর পরিচয় ও অবস্থান জানতে চাইলে -‘ছেলের সঙ্গে কথা বল’ বলে ফোনটি আরেকজনের কাছে দেয়। ফোনের অপর প্রান্ত থেকে আমার ছেলের কণ্ঠের মতো একটি কণ্ঠে কান্না করে বলা হয়- ‘আব্বু আমাকে উদ্ধার করতে হলে ওই ফোনে কথা বলে তাদের কথা মতো টাকা দিয়ে দাও’। যে ফোন করেছিলো তাকে বলি- দুইমিনিট পর ফোন দিচ্ছি।একথা বলে কল কেটে দিয়ে বাসায় ফোনকল দিয়ে জানতে পারেন তার ছেলে-মেয়েরা বাসাতেই রয়েছে।

এরপর ওই নাম্বারে একাধিকবার কল দিলেও কেউ রিসিভ করেনি। তখন প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পেরে তিনি থানায় জিডি করেন।

জালাল উদ্দিন বলেন, আমার ছেলে ব্লু বার্ড স্কুলের নবম শ্রেণিতে, এক মেয়ে ওই স্কুলের দশম শেনীতে ও আরেক মেয়ে নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজে পড়ে। নিজে তিন সন্তানের জনক উল্লেখ করে তিনি বলেন, কল দেওয়া ০১৭৩১২৫৭৪১৭ নাম্বারে মঙ্গলবার রাতে একাধিকবার কল দিলেও নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়।

সিলেট কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদ সাধারণ ডায়রির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখছি।

 

এ বিভাগের অন্যান্য