নাঙ্গলকোটে ট্রাক্টর ভাঙল বিদ্যালয়ের সীমানাপ্রাচীর

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে অবৈধ ট্রাক্টর দিয়ে মাটি কেটে নেওয়ার সময় আতাকরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সীমানাপ্রাচীর ও বিদ্যালয়ে যাতায়াতের কাঁচা রাস্তাটি ভেঙে ফেলার অভিযোগ উঠেছে ব্রিকসের মালিক ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে। পৌর সদরের আতাকরা গ্রামের আতাকরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এমন চিত্র দেখা যায়।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, আতাকরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে ওই গ্রামের হাবিব মিয়ার ছেলে আতিক মিয়ার ফসলি জমিতে এক্সকাভেটর দিয়ে মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছেন দায়েমছাতি বাজার ব্রিকসের মালিক ফারুক হোসেন। ট্রাক্টর দিয়ে মাটি নেওয়ার সময় বিদ্যালয়ের সীমানাপ্রাচীর ভেঙে ফেলা হয়।

পাশাপাশি যাতায়াতের পাকা ও কাঁচা রাস্তাটি ভেঙে ফেলা হয়।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আশরাফুল হক ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে অবৈধ ট্রাক্টরে মাটি কাটার অপরাধে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এতেও ক্ষান্ত হননি তিনি। পুনরায় তারা আবার মাটি কাটা শুরু করেন।

অভিযুক্ত ব্রিকসের মালিক ফারুক হোসেন বলেন, তার ট্রাক্টর সীমানাপ্রাচীর ভাঙেনি। রাস্তা যেখানে গর্ত হয়েছে সেখানে মাটি দিয়ে ভরাট করা হবে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আশরাফুল হক জানান, একবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তারা আবার মাটি কাটা শুরু করে। অফিস থেকে লোক পাঠানো হয়েছে। বন্ধ না করলে সোমবার ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে সাজা দেওয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য