ইউক্রেনের পরমাণু গবেষণাকেন্দ্রে রাশিয়ার আবারও হামলা চালিয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ঃ

ইউক্রেনের একটি পরমাণু গবেষণাকেন্দ্রে রাশিয়া আবারও হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে কিয়েভ।

একই সঙ্গে মস্কো পারমাণবিক সন্ত্রাস চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছে জেলেনস্কির সরকার। খবর বিবিসির।

এর আগে গত সপ্তাহে জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক কেন্দ্রে রুশ সামরিক বাহিনী ভয়াবহ হামলা চালায়।

ইউক্রেনের রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক নিয়ন্ত্রক পরিদর্শন সংস্থা জানিয়েছে, দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর খারকিভে অবস্থিত ওই পারমাণবিক স্থাপনায় বৃহস্পতিবার রাতে হামলা চালায় রুশ সামরিক বাহিনী।

রুশ সেনাদের কামানের গোলাবর্ষণের কারণে পরমাণু গবেষণা কেন্দ্রটির বিদুৎ চলে যায় এবং এতে স্থাপনাটি বেশ ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।

পরমাণু গবেষণাকেন্দ্রে এ হামলার ঘটনায় কোনো হতাহতের খবর এখনও পাওয়া যায়নি এবং রাশিয়াও এখন পর্যন্ত প্রকাশ্যে এ ইস্যুতে কোনো মন্তব্য করেনি।

এর আগে গত ৩ মার্চ দক্ষিণ-পূর্ব ইউক্রেনের জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক কেন্দ্র রুশ সামরিক দখল করে নেয়। দখলের আগে রুশ সেনাদের হামলায় পরমাণুকেন্দ্রটি ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে অভিযোগ ওঠে।

এ ছাড়া বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের পারমাণবিক পর্যবেক্ষণ সংস্থা আইএইএ বলেছে, রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর দখল করে নেওয়া ইউক্রেনের চেরনোবিল পরমাণুকেন্দ্রের তেজস্ক্রিয় বর্জ্য ভয়ানক পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে।

সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের চেরনোবিল পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে ১৯৮৬ সালের ২৬ এপ্রিল ভয়াবহ পারমাণবিক দুর্ঘটনা ঘটে। ওই দিনটি ‘চেরনোবিলের বিপর্যয়’ হিসেবে পরিচিত।

সোভিয়েতের পতনের পর চেরনোবিল বিদ্যুৎকেন্দ্রটি বর্তমান ইউক্রেনের অন্তর্ভুক্ত হয়। এই পারমাণবিক দুর্ঘটনাকে স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ও বিপর্যয় হিসেবে মনে করা হয়ে থাকে।

এ বিভাগের অন্যান্য