সিগারেটে সাড়ে ৮১ কোটি টাকা শুল্ক ফাঁকি, দুদকের ১১ মামলা

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে উচ্চ শুল্কের সিগারেট আমদানি করার অভিযোগে কাস্টমস কর্মকর্তা ও আমদানিকারকসহ ১১২ জনের বিরুদ্ধে ১১টি মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। ১১ মামলায় ৮১ কোটি ৪৮ লাখ ৯৮ হাজার ১৬৮ টাকা শুল্ক ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পচিালক বিলকিস আক্তার, মাহবুবুল আলম, মুহাম্মদ জাফর সাদেক শিবলী ও উপ পরিচালক নারগিস সুলতানা বাদী হয়ে চট্টগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ মামলাগুলো দায়ের করেছেন।

এর আগে, গত ৫ মার্চ ১০৫ কোটি টাকা শুল্ক ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে তিনটি মামলা হয়েছিল।

এই নিয়ে পাঁচদিনের ব্যবধানে ১৪টি মামলা দায়ের করা হলো। এসব মামলায় মোট শুল্ক ফাঁকির অভিযোগ আনা হয়েছে প্রায় ১৮৭ কোটি টাকার।

মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪০৯, ৪২০, ৪৬৭, ৪৬৮, ৪৭১, ১০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় অভিযোগ করা হয়। ২০১৮ সালের বিভিন্ন সময়ে এ জালিয়াতি ও শুল্ক ফাঁকির ঘটনা ঘটেছে।

তিনটি মামলা দায়েরের বিষয়টি কালের কণ্ঠকে নিশ্চিত করেছেন দুদক চট্টগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এর উপপরিচালক মো. নাজমুচ্ছায়াদাত। তিনি বলেন, শুল্ক ফাঁকি ও জাতিয়াতির ঘটনাগুলো তদন্ত করেছে দুদকের প্রধান কার্যালয়। প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ার পর ঘটনাস্থল চট্টগ্রাম বন্দর হওয়ায় ১১টি মামলা চট্টগ্রামে রেকর্ড হয়েছে।

এসব মামলায় মোট ১১২ জনকে আসামি করা হলেও একই ব্যক্তি একাধিক মামলায় আসামি হওয়ায় প্রকৃত ব্যক্তির সংখ্যা আরো কম। মামলার এজহার পর্যালোচনা করে ৯ জন কামস্টম কর্মকর্তা ও কর্মচারীর নাম পাওয়া গেছে।

তাঁরা হলেন, রাজস্ব কর্মকর্তা সুলতান আহমদ, হাবিবুল ইসলাম, মেহেরাব আলী, সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মাহমুদা আকতার লিপি, সাবেক সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা সাইফুন্নাহার জনি, কাস্টমস হাউজের সহকারী প্রোগ্রামার কামরুল হক, কম্পিউটার অপারেটর ফিরোজ আহমেদ, তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী আবদুল আল মাছুম, অফিস সহায়ক সিরাজুল ইসলাম। ১১ মামলার আসামিরা হলেন, সংশ্লিষ্ট আমদানিকারক, সিএন্ডএফ এজেন্ট ও কাস্টমসের বহিরাগত (ফালতু)।

১১ মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, শিল্পকারখানার যন্ত্রণাংশসহ বিভিন্ন পণ্য ঘোষণা দিয়ে আমদানি নিষিদ্ধ উচ্চ শুল্কের সিগারেট আমদানি ও খালাস করে সরকারের প্রায় ৮১ কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য