মাধবপুরে প্রেমিকাকে ধর্ষণ করে ঢাকায় দারোয়ানের চাকরি, শেষ রক্ষা হলো না

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

মাধবপুরে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণের অভিযুক্ত প্রেমিক জাহাঙ্গীর মিয়াকে (২২) এক মাস পর পুলিশ ঢাকার গুলশানের একটি বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেছে। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে মঙ্গলবার ভোরে মাধবপুরের পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

মঙ্গলবার দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই বাবুল মিয়া চৌধুরী তাকে আদালতে প্রেরণ করেন। আদালত জাহাঙ্গীরের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জাহাঙ্গীর মিয়া উপজেলার সন্তোষপুর গ্রামের সেলিম মিয়ার ছেলে।

মাধবপুর থানার ওসি মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গত ২৭ জানুয়ারি সন্তোষপুর গ্রামের এক কিশোরীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে জাহাঙ্গীর তার বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে। অসুস্থ অবস্থায় ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে স্বজনরা হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ১ ফেব্রুয়ারি থানায় জাহাঙ্গীরকে অভিযুক্ত করে মামলা করা হয়। মামলা হওয়ার পর থেকেই গ্রেফতার এড়াতে আত্মগোপনে চলে যায় আসামি।

তিনি জানান, ঢাকার গুলশান থানা এলাকায় একটি বাসায় দারোয়ানের চাকরি নেয় জাহাঙ্গীর। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে তার অবস্থান শনাক্ত করার পর মঙ্গলবার ভোরে মাধবপুর পুলিশের একটি দল জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার করে।

 

এ বিভাগের অন্যান্য