চুনারুঘাটে দুই জুয়াড়ি আটক: সরঞ্জাম ও নগদ টাকা উদ্ধার

সিলেটের সময় ডেস্ক  ঃ

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের উলুকান্দি হাওরে জুয়ার আস্তানায় অভিযান চালিয়ে ২ জুয়াড়ীকে আটক করেছে চুনারুঘাট  থানা পুলিশ। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টেরপেয়ে তাদের সহযোগী ১০/১২ জনের একটি  চক্রটি পালিয়ে যায়।   আটককৃতদের বিরুদ্ধে জুয়া আইনে মামলা দিয়ে   বুধবার (২৬ জানুয়ারি)  বিকেলে  আদালতের  প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়-মঙ্গলবার  দিবাগত রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুনারুঘাট  থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মো : আলী আশরাফ সহ একদল  পুলিশ উপজেলার উবাহাটা ইউনিয়নের  উলুকান্দি হাওর  থেকে জুয়া খেলা অবস্থায় দুই জুয়াড়িকে আটক করা হয় । আটককৃতরা হলো- চুনারুঘাট উপজেলার বরমপুর গ্রামের  আব্দুল হাসিমের পুত্র আব্দুর রশিদ (৫৫),  মাধবপুর উপজেলার নারাইনপুর এলাকার মৃত  ওয়াহাব আলীর পুত্র  মারুফ (৪৫), আটককৃতদের বুধবার বিকেলে  আদালতের প্রেরণ করা হয়েছে। চুনারুঘাট  থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)  মো: আলী আশরাফ  জানান – আটক জুয়াড়ীদের হেফাজত থেকে  জুয়া খেলার  ওয়ান টেন  পিং ও বোর্ড এবং নগদ টাকা জব্দ করা হয়েছে।  পরে আটককৃতদের নামে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয় ।

অনুসন্ধানে জানা গেছে :  পেশাদার জুয়াড়িরা শহর ছেড়ে এখন ছড়িয়ে পড়েছে গ্রামগঞ্জের  হাওর অঞ্চল ও বিভিন্ন বাসাবাড়িতে। ধনাঢ্যরা গোপনে অভিজাত এলাকার ফ্ল্যাটে ও বাসা বাড়িতে আর  নিম্নবিত্তরা হাওর ও চরাঞ্চল এবং  নদীর পাড়ে জমিয়ে তোলে জুয়ার আসর। এসব আসরে প্রতি রাতে উড়ছে লাখ লাখ  টাকা। মাঝেমধ্যে দু,একজন গ্রেফতার হলেও ছাড়া পাচ্ছে সহজে।  জুয়া ঘিরে হচ্ছে চুরি, ছিনতাই সহ  নানা অপরাধ ।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, জুয়ার টাকা জোগার করতে ছিনতাইসহ নানা অপরাধ কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছে তরুণ সহ অনেকেই । জুয়া পারিবারিক ও সামাজিক শান্তি বিনষ্টের অন্যতম কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে । হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলি   জানান,  জুয়া খেলা বন্ধ করতে সকল থানার ওসিদের বলা হয়েছে , কোন অবস্থাতেই যেন জুয়া খেলা না হয়। হবিগঞ্জ  জেলাকে জুয়া মুক্ত করতে  অভিযান অব্যাহত আছে।  কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা।

এ বিভাগের অন্যান্য