বড়লেখায় গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টা, গ্রেফতার ১

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় এক গৃহবধূকে (৩১) ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই গৃহবধূ থানায় মামলা করেছেন। মামলার পরই পুলিশ অভিযুক্ত আব্দুল কাদির বাবুলকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) বিকেলে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত বাবুল বড়লেখা পৌরসভার গাজিটেকা এলাকার মৃত তাজুল ইসলামের ছেলে।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই গৃহবধূর স্বামীর সঙ্গে পরিচয়ের সুবাধে অভিযুক্ত আব্দুল কাদির বাবুল তাদের বাড়িতে প্রায়ই যাওয়া-আসা করতেন। এতে গৃহবধূর ওপর কুদৃষ্টি পড়ে বাবুলের। বিষয়টি বুঝতে পেরে সম্প্রতি গৃহবধূর স্বামী বাবুলকে তার বাড়িতে আসতে নিষেধ করেন এবং তার সঙ্গে চলাফেরা বন্ধ করে দেন।

গত ৯ নভেম্বর রাতে গৃহবধূর স্বামী বাড়ির বাইরে ছিলেন। এই সুযোগে রাত ১০টার দিকে অভিযুক্ত বাবুল বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা চালান। এসময় গৃহবধূর চিৎকার শুনে পরিবারের সবাই এগিয়ে এলে বাবুল পালিয়ে যান। এই ঘটনায় ওই গৃহবধূ বাদি বড়লেখা থানায় অভিযুক্ত আব্দুল কাদির বাবুলের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে রোববার রাতে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে।

বড়লেখা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রতন দেবনাথ মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) বিকেলে বলেন, ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ এনে এক গৃহবধূ থানায় মামলা করেছেন। মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ অভিযুক্ত আব্দুল কাদির বাবুলকে গ্রেপ্তার করেছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে

এ বিভাগের অন্যান্য