ছাত্রীদের স্কুলে যেতে দিতে আফগান শাসকদের মালালার খোলা চিঠি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ঃ

মেয়ে শিক্ষার্থীদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফেরানোর দাবি জানিয়ে আফগানিস্তানের নতুন শাসকগোষ্ঠীর উদ্দেশে খোলা চিঠি লিখেছেন নোবেল শান্তি পদকজয়ী পাকিস্তানের মানবাধিকার কর্মী মালালা ইউসুফজাই।  খবর দ্য ডনের।

তালেবান কাবুল দখলে নিয়েছে এক মাসেরও বেশি সময় আগে। ১৫ আগস্ট ওই দখলদারিত্বের পর থেকেই আফগানিস্তানের ছাত্রীরা স্কুলে যেতে পারছে না। যদিও সম্প্রতি ছাত্ররা স্কুলে ফেরার আদেশ পেয়েছে।

তালেবান নেতারা দাবি করেছেন, ইসলামিক আইনের বাস্তবায়ন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পরই ছাত্রীদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফেরানো হবে।

আফগানিস্তানে নারী শিক্ষা বন্ধে উদ্বেগ প্রকাশ করে মালালাসহ নারী অধিকারকর্মীরা ছাত্রীদের স্কুলে ফেরানোর দাবি করেছেন। রোববার এক খোলা চিঠিতে এ দাবি জানান তারা।

মালালা ওই চিঠিতে মুসলিম বিশ্বের নেতাদের উদ্দেশে বলেছেন, নারীদের স্কুলে যাওয়ার ক্ষেত্রে ধর্ম কোনো মানদণ্ড হতে পারে না, এটি তালেবানকে নিশ্চিত করতে চাপ দিতে হবে।

খোলা চিঠিতে আরও বলা হয়েছে— বর্তমান পৃথিবীতে আফগানিস্তানই একমাত্র দেশ যেখানে নারীদের স্কুলে যেতে বাধা দেওয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত ২০১২ সালে স্কুলবাসে করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়ার পথে তেহরিক-ই তালেবানের গুলিতে মাথায় জখম হয়েছিলেন মালালা। পরে তাকে নোবেল শান্তি পদকে ভূষিত করা হয়। মালালার বয়স এখন ২৪ বছর। তিনি নারী শিক্ষার পক্ষে আন্দোলন করছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য