কখনো ওসি, কখনো এসআই পরিচয়ে চাঁদাবাজি!

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালী থানার ওসি পরিচয়ে এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে তিন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার রাত থেকে রোববার সকাল পর্যন্ত নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতাররা হলেন- মো. তারেক (২২), মো. আরিফ হোসেন (৩০) ও মো. আজিম হোসেন ওরফে ইমন (২৭)।

কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন বলেন, গত ১৫ সেপ্টেম্বর মো. লুৎফর রহমান (৪২) নামে আসাদগঞ্জের এক ব্যবসায়ীকে ওসি পরিচয়ে ফোন করে কে বা কারা দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। অন্যথায় কোতোয়ালী থানা এলাকায় ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবেন না বলে হুমকি দেয়। পরদিন ওই ব্যবসায়ী কোতোয়ালী থানার টহল পুলিশকে অবহিত করেন। বিষয়টি জানার পর হুমকিদাতাদের ফোন নম্বর সংগ্রহ করে প্রযুক্তির সহায়তায় তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতাররা ওসি পরিচয়ে চাঁদা দাবির কথা স্বীকার করেছে।

ওসি বলেন, গ্রেফতার আসামিরা কখনো কোতোয়ালি, পাঁচলাইশ ও পতেঙ্গা থানার ওসি, আবার কখনো এসআই পরিচয় দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে লোকজনের কাছ থেকে চাঁদা দাবি করতেন।  তারা প্রথমে ভুক্তভোগী বা সেবাপ্রার্থী সেজে বিভিন্ন থানায় গিয়ে সেখানকার ওসি, পরিদর্শক (তদন্ত) ও অন্য কর্মকর্তাদের নাম সংগ্রহ করেন। এরপর বিভিন্ন ঘটনা সম্পর্কে থানায় খোঁজখবর নিয়ে তাৎক্ষণিক ওই ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তার নাম ব্যবহার করে বাদী ও বিবাদীকে ফোন করে চাঁদা দাবি করেন গ্রেফতার আসামিরা। টাকা আদায়ের পরই ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে দেয় চক্রটি।

ভুয়া মামলার কথা বলে সম্প্রতি সমীর চৌধুরী নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে এই চক্র ৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় বলেও জানান ওসি।

এ বিভাগের অন্যান্য