জনদূর্ভোগ এড়াতে বাঁশের সেতু নির্মিত হচ্ছে নোয়াগাঁও খালে

সিলেটের সময় ডেস্ক ঃ

জনদূর্ভোগ মোকাবেলায় এবার বাঁশের সেতু নির্মিত হচ্ছে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারের নোয়াগাঁও খালের উপর। জনদূর্ভোগ লাঘবে সম্প্রতি এ মহতি উদ্যোগ নিয়েছে ওই এলাকার কয়েক গ্রামবাসী ও স্থানীয় শ্যামলবাজার যুব সমাজকল্যাণ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য, মেঘালয় থেকে নেমে আসা আকস্মিক পাহাড়ি ঢল ও পরপর চারদফা অকাল বন্যায় ছাতক-সুনামগঞ্জ মহাসড়কে দোয়ারাবাজারের নোয়াগাও খালের ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ার বছর পেরিয়ে গেলেও নেই ব্রিজ নির্মাণের কোনো উদ্যোগ। মানুষ ও যান চলাচলে ক্রমশ বাড়ছে জনদূর্ভোগ। জনদূর্ভোগ লাঘবে জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এযাবত কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।

জনদুর্ভোগ মাথাচাড়া দিয়ে উঠলে অবশেষে সংশ্লিষ্ট এলাকার কয়েক গ্রামের মানুষ ও স্থানীয় শ্যামল বাজার যুব সমাজকল্যাণ সংগঠনের নেতৃবৃন্দের উদ্যোগে নির্মিত হচ্ছে বাঁশের সেতু।

এতে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন ওই সংগঠনের সভাপতি রমজান আলী, সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মিয়া, সদস্য দিলোয়ার হোসেন দিলাই, আব্দুল মতিন, সফিক মিয়া, আবুল মিয়া কবিরাজ, সফর উদ্দিন, আজরফ মিয়া চৌধুরী, রাকিব আলী, কামরুল ইসলাম, মালেক সরকার, খসরু মিয়া, আতর আলী, সাহাঙির মিয়া, জলাল মিয়া, নুর মিয়া প্রমূখ।

সংগঠনের সভাপতি রমজান আলী বলেন, দুপারের মানুষজন নৌকায় ঝুঁকিপূর্ণ পারাপারে ভয়াকাতুর হয়ে পড়েন। কেননা ইতিপূর্বে ওই খালে নৌকাডুবিতে অনেকেই মারা গেছেন।

মাওলানা রুহুল আমিন বলেন, আপাতত বাঁশের সেতুটির নির্মাণকাজ সম্পন্ন হলে মানুষের ভোগান্তি কিছুটা অবসান হবে।

সমাজ ব্যক্তিত্ব রাকিব আলী বলেন, প্রশংসনীয় উদ্যোগে বাঁশের সেতু স্থাপনে জনকল্যাণমুখি কাজে এগিয়ে আসায় ওই সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।

সমাজ সেবক জাহাঙ্গীর আলম রফিক বলেন, ব্যস্ততম ওই সড়কের নোয়াগাঁও খালে বাঁশের সেতু নির্মিত হলেও সরকারি উদ্যোগে দ্রুত স্থায়ী ব্রিজ নির্মাণের দাবি জানাচ্ছি।

মান্নারগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজ বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ থেকে নোয়াগাঁও খালটি লিজ দেয়া হয়েছে। তবে জনগণের দূর্ভোগ লাঘবে বাঁশের সেতু নির্মাণে আমার আপত্তি নেই পারাপারে জনগণের কাছ থেকে যদি কোনো টাকা পয়সা নেয়া না হয়।

 

এ বিভাগের অন্যান্য