কামরান চত্বরের নেমপ্লেটটি আবারও বসালো ছাত্রলীগ

সিলেট নগর ভবনের সামনে গত বছরের জুলাই মাসে সৌন্দর্যবর্ধন করে সিলেটের প্রতীকখ্যাত আলী আমজদের ঘড়িঘর ও বাসাবাড়ির আদি কাঠামোর আদলে একটি স্থাপনা সেখানে স্থাপন করা হয়। পরে সিসিক মেয়র স্থাপনা উন্মোচন করলে সেখানে ‘নগর চত্বর’ নামফলক লাগানো হয়।

পরবর্তীতে চত্বরটি সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) প্রথম নির্বাচিত মেয়র প্রয়াত বদরউদ্দিন আহমদ কামরানের নামে ‘জনতার কামরান চত্বর’ করতে দাবি উঠে। এরপর ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতৃবৃন্দ চত্বরে ‘জনতার কামরান চত্বর’ নামে নামফলক স্থাপন করেন। দীর্ঘদিন পর সেই নামফলকটি দুর্বৃত্তরা খুলে ফেলে। বিষয়টি আবারও নজরে আসে ছাত্রলীগ নেতবৃন্দের। আবারও তারা উদ্যোগ নেন নামফলখ স্থাপনের। মঙ্গলবার (১১ মে) ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উধাও হওয়া স্থানে পূনরায় ‘জনতার কামরান চত্বর’ নামে নামফলক স্থাপন করেন।

জানা যায়, ২০২০ সালের ১৫ জুন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেটের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান করোনায় মারা যান। তিন দশকের বেশি সময় ধরে তৎকালীন সিলেট পৌরসভার চেয়ারম্যান, কমিশনার থেকে শুরু করে মেয়রের দায়িত্ব পালন করেছিলেন কামরান। এই জনপ্রিয় নেতার মৃত্যুর পর নগর ভবনের সামনের চত্বরের নাম ‘কামরান চত্বর’ রাখার দাবি ওঠে।

এ বিভাগের অন্যান্য