স্ত্রীকে বখাটেদের হাত থেকে রক্ষা করতে গিয়ে হাসপাতালে স্বামী

যশোরের অভয়নগরে স্ত্রীকে বখাটেদের হাত থেকে রক্ষা করার সময় বেদম মারধরের শিকার হয়েছেন স্বামী শফিকুল মোল্যা (৩০)। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

শুক্রবার রাতে উপজেলার প্রেমবাগ ইউনিয়নের ধলিরগাতি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

শফিকুল মোল্যার স্ত্রী তহমিনা খাতুন জানান, শুক্রবার রাতে তার স্বামী বাড়িতে না থাকায় এলাকার চার-পাঁচজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী তার ঘরের দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে তাকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। এ সময় তার স্বামী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সন্ত্রাসীদের বাধা দিলে সন্ত্রাসীরা তার স্বামীকে লোহার রড দিয়ে এলোপাতাড়ি মারতে মারতে ঘর থেকে বাইরে ফেলে দেয়।

পরে ওই গৃহবধূর চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে সস্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এলাকাবাসী তার স্বামীকে উদ্ধার করে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শফিকুল মোল্যা জানান, ধলিরগাতি গ্রামের মোহর আলীর ছেলে মেহেদি হাসান, মুনতাজ মোল্যার ছেলে আকতার মোল্যা, মনা মোল্যার ছেলে হুমাই মোল্যা এবং রিয়াজ তাকে লোহার রড দিয়ে মাথায়, হাতে ও পায়ে বেধড়ক মারপিট করেছে।

অভয়নগর থানার ওসি (তদন্ত) মিলন কুমার মণ্ডল বলেন, বিষয়টি শুনেছি। এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য