করোনা: ঢাকায় যেতে হবে না সিলেটের বিদেশগামীদের

সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের করোনাভাইরাস পরীক্ষার আরটি-পিসিআর যন্ত্র গত শুক্রবার থেকে বিকল হয়ে আছে। এ ল্যাবে বিদেশগামী যাত্রীদের করোনা পরীক্ষা করা হয়। যন্ত্রটি বিকল হয়ে পড়ায় শনিবার বিদেশগামীদের কোনো পরীক্ষা এ ল্যাবে হয়নি। তবে একদিন পরই ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে বিকল্প হিসেবে বিদেশগামীদের পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জিইবি বিভাগের ল্যাবে।

জানা গেছে, গত শুক্রবার রাতে ওসমানীর আরটি-পিসিআর যন্ত্রে ত্রুটি দেখা দেয়। ফলে শনিবার সিলেট অঞ্চলের বিদেশগামীদের করোনা পরীক্ষার নিবন্ধন ও পরীক্ষা বন্ধ থাকে। এতে বিপাকে পড়েন বিদেশগামীরা। ফলে নির্ধারিত ফ্লাইট ধরার আগে করোনা পরীক্ষা করাতে হন্তদন্ত হয়ে অনেকে ছুটে যান ঢাকায়। কেননা, ফ্লাইট নির্ধারিত হওয়ার পরই বিদেশযাত্রীদের করোনা পরীক্ষা করাতে হয়।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, বিদেশযাত্রীদের ভোগান্তির বিষয়টি বিবেচনা করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাদের নির্দেশনায় সিলেটে বিকল্প উপায় বের করা হয়েছে। এজন্য শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জিইবি বিভাগের আরটি-পিসিআর ল্যাবে বিদেশগামীদের পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ওসমানীর ল্যাবে কাজ করা একটি টিম শাবির ল্যাবে সহযোগিতা করছে।

বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণের পর রবিবার থেকে ফের বিদেশগামীদের করোনা পরীক্ষার নিবন্ধন শুরু করেছে সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয়। আজ ১৪৪ জন যাত্রী নিবন্ধন করেছেন বলে জানা গেছে।

সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রধান সহকারী অরুণ কুমার চৌধুরী জানান, ওসমানীর ল্যাবের চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে শাবিতে বিদেশগামী যাত্রীদের করোনার নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে।

ওসমানী মেডিকেলের অধ্যক্ষ ও সিলেটে করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ কমিটির চেয়ারম্যান মো. ময়নুল হক বলেন, বিদেশগামীদের ভোগান্তি কমাতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনায় শাবিতে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ওসমানীর ল্যাবের পিসিআর যন্ত্র ঠিক হয়ে গেলে এখানেই তাদের নমুনা পরীক্ষা করা হবে।

এদিকে, ওসমানীর আরটি-পিসিআর যন্ত্র ঠিক করতে সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের প্রধান প্রকৌশলীর নেতৃত্বে একটি টিম সিলেটে পৌঁছে কাজ শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন ময়নুল হক।

তিনি জানান, দু-একদিনের মধ্যে যন্ত্রের সমস্যার সমাধান হতে পারে।

এ বিভাগের অন্যান্য