ধামরাইয়ে ২ বাসের সংঘর্ষে প্রাণ গেল গৃহবধূর

ডেস্ক রিপোর্ট ,

 

ঢাকার ধামরাই উপজেলায় দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক গৃহবধূ নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক যাত্রী।

রোববার ভোরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে ধামরাইয়ের কালামপুর রাবেয়া ক্লিনিকের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূর নাম কবিতা রানী সরকার (৩৮)। তিনি ধামরাই ডুভিটা দি একমি ল্যাবরেটরিজ কোম্পানির নারী শ্রমিক ও উপজেলার সানোড়া ইউনিয়নের মহিষাশী গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা বেপরোয়া গতিসম্পন্ন পাটুরিয়াগামী বাসটি ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের কালামপুর রাবেয়া ক্লিনিকের সামনে পৌঁছলে ঢাকাগামী ডিলিংক পরিবহনের ওপর বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই একজনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন উভয় পরিবহনের কমপক্ষে অর্ধশতাধিক যাত্রী।

এদের মধ্যে মো. কিয়ামুদ্দিন (৪৫), নাইমা হোসেন (২৪), কানিজ ফাতমা (১৯), রবিন মিয়া (২১), সাবিত্রী রানী সূত্রধর (১৭), নিত্যরঞ্জন দাস (৪২), গৌরাঙ্গ দাস (২৬), পল্লবী রানী চৌধুরী (৩১) ও জব্বার হোসেনসহ (৩৮) ১৩ যাত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ধামরাই থানার ওসি (তদন্ত) মো. কামাল হোসেন বলেন, কবিতা রানী সরকার নামে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে গোলড়া হাইওয়ে থানা পুলিশ। এ ব্যাপারে ধামরাই থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ধামরাই ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বাহিনীর স্টেশন অফিসার মো. হুমায়ুন কবির বলেন, আমরা একটি মরদেহ উদ্ধার করেছি। প্রায় আহত অর্ধশত যাত্রীকে উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতাল ও প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করেছি।

এ বিভাগের অন্যান্য