প্রধানমন্ত্রীকে সম্পত্তি লিখে দিলেন আ’লীগ নেতা সুখরঞ্জন

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সম্পত্তি লিখে দিলেন বরিশালের বানারীপাড়ার প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা ও আইনজীবীর সহকারী সুখরঞ্জন ঘরামী। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভালোবেসে তিনি রোববার দুপুরে চাখার সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে গিয়ে করে ৫ শতক সম্পত্তি লিখে দেন।

দলিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রহীতা করা হয়েছে। বানারীপাড়া প্রেস ক্লাব সভাপতি রাহাদ সুমন তার ওই দলিলের পরিচিত হয়েছেন।

জানা গেছে, বরিশালের বানারীপাড়া ও পিরোজপুরের নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠি) উপজেলার সীমান্তবর্তী বানারীপাড়া সদর ইউনিয়নের কাজলাহার বাজার সংলগ্ন মহাসড়কের পাশে সুখরঞ্জন ঘরামীর নিজস্ব সম্পত্তি রয়েছে। সেখানে সম্প্রতি বানারীপাড়া উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিকৃতি ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়।

তার সম্পত্তিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিকৃতি ভাস্কর্য নির্মাণ করায় উচ্ছ্বসিত ও গৌরবান্বিত বলে যুগান্তরকে জানান সুখরঞ্জন ঘরামী।

তিনি জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মহান স্বাধীনতা অর্জিত হওয়ার পাশাপাশি বাঙালি জাতি একটি লাল-সবুজ পতাকা ও স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ পেয়েছে। তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সেই দেশ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় রূপান্তর হওয়ায় তার প্রতি অকৃত্রিম কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসার নিদর্শন উপহার হিসেবে তিনি এ সম্পত্তি লিখে দিয়েছেন।

সুখরঞ্জন ঘরামী জানান, তার তিন ছেলে ও এক ছেলের বউ ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করে বেকার থাকায় পাঁচ সন্তানের জনক এখনও বরিশাল আদালতে গিয়ে আইনজীবী সহকারীর কাজ করে ১২ সদস্যের পরিবারের ভরণ-পোষণ ও দুই ছেলের বউ এবং তিন নাতি-নাতনীর লেখাপড়ার খরচ যুগিয়ে আসছেন। এছাড়া তার সঙ্গে বাড়তি আয়ের যোগান দিচ্ছেন তার এক ছেলে স্বর্ণের দোকানে কাজ করে।

তিনি জানান, তার দীর্ঘ দিনের বাসনা, জীবনে একবার হলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করবেন। এ সময় তিনি তার দেয়া ওই সম্পত্তির দলিল প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দিবেন। জীবনের শেষ বেলায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একবার সাক্ষাত করতে পারলে তিনি পরলোকেও শান্তি পাবেন বলে তিনি জানান।

এ বিভাগের অন্যান্য