রাশিয়ার সামরিক হেলিকপ্টার ভূপাতিত করল আজারবাইজান

আর্মেনিয়ার সীমান্ত এলাকায় রাশিয়ার একটি সামরিক হেলিকপ্টার ভুল করে ভূপাতিত করেছে আজারবাইজান। এমআই-২৪ মডেলের এই হেলিকপ্টারটিতে থাকা দুই সেনাসদস্য নিহত ও তৃতীয়জন আহত হয়েছেন। তবে এই ঘটনায় আজারবাইজান ক্ষমা চেয়েছে। খবর-বিবিসি।

রাশিয়া বলছে, মিসাইল হামলায় তাদের সামরিক হেলিকপ্টারটি ভূপাতিত হয়েছে। আর্মেনিয়ায় তাদের ঘাঁটির কাছেই হেলিকপ্টারটি ছিল। নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। তবে বিরোধপূর্ণ ওই এলাকায় হেলিকপ্টারটি অবস্থান করেনি।

সোমবার রাশিয়ান ওই হেলিকপ্টারটি ভূপাতিত করা হয়। ওইদিনই আজারবাইজানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সীমান্তে নাখচিভান সেকশনে রাশিয়ান এমআই-২৪ সামরিক হেলিকপ্টার স্থানীয় সময় বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে ভূপাতিত করা হয়েছে।

সায়ত্ত্বশাসিত নাখচিভান অঞ্চলটি আর্মেনিয়া, ইরান ও তুর্কি সীমান্তে অবস্থিত। আজেরি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, হেলিকপ্টারটি স্বাভাবিক উচ্চতার চেয়ে নিচুতে এক ঘণ্টার মতো অন্ধকারে উড়ছিল এবং বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এর অবস্থান শনাক্ত করে। এতে বলা হয়, এর আগে রাশিয়ান হেলিকপ্টার ওই এলাকায় উড়তে দেখা যায়নি।

এদিকে রাশিয়ান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, এমআই-২৪ হেলিকপ্টারটি রাশিয়ান সামরিক ঘাঁটির কাছে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ভূপাতিত হয়। এ ঘটনাটি ইয়েরাস্ক শহরের কাছে ঘটেছে। হেলিকপ্টারটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আর্মেনিয়ার পর্বত এলাকায় বিধ্বস্ত হয়।

রাশিয়ান হেলিকপ্টার ভূপাতিতের ঘটনায় আজারবাইজানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এই মর্মান্তিক ঘটনার জন্য আজারবাইজানের পক্ষ থেকে রাশিয়ার কাছে ক্ষমা চাওয়া হয়েছে। এই ঘটনাটি দুর্ঘটনাবশত ঘটেছে। কোনোভাবেই রাশিয়ার প্রতি উদ্দেশ্যমূলক ছিল না। এই ঘটনার জন্য আজারবাইজান ক্ষতিপূরণ দিতেও প্রস্তুত। আজারবাইজান নিহত সামরিক বাহিনীর সদস্যদের পরিবারের প্রতিও গভীর সমবেদনা জানিয়েছে। আর যারা আহত হয়েছে তাদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছে।

মূলত সোমবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতি দেওয়ার পর আজারবাইজান ক্ষমা চেয়ে বিবৃতি দেয়।

পরবর্তীতে এক টুইটে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কোনো রকম দেরি ছাড়া ঘটনার দোষ স্বীকার করেছে আজারবাইন, আমরা বিষয়টি ইতিবাচকভাবে দেখছি। এ ঘটনায় আজারবাইজান দ্রুত তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে এবং দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি দেয়ার কথা জানিয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য