ভারতে আরও ৪৯০ প্রাণ কাড়ল করোনাভাইরাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ,

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৫ হাজার ৯০৩ জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্ত হলেন ৮৫ লাখ ৫৩ হাজার ৬৫৭ জন।

এই সময়ে মৃত্যু হয়েছে ৪৯০ জনের। এখনও পর্যন্ত ১ লাখ ২৬ হাজার ৬১১ কোভিড রোগী মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪৮ হাজার ৪০৫ জন। সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৫ লাখ ৯ হাজার ৬৭৩ জন। এখনও পর্যন্ত দেশটিতে মোট ৭৯ লাখ ১৭ হাজার ৩৭৩ জন করোনার কবল থেকে মুক্ত হয়েছেন।

সোমবার ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক বুলেটিনে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির সর্বশেষ এ তথ্য জানিয়েছে। খবর এএনআই।

ভারতে চলতি মাসের শুরু থেকেই ৪০ থেকে ৫০ হাজারের মধ্যে ঘোরাফেরা করছে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা। দেশটির অধিকাংশ রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে থাকলেও দিল্লিতে শনাক্তের হার বেশি।

করোনায় ভারতে এ পর্যন্ত যত মানুষ মারা গেছে, তার প্রায় এক-তৃতীয়াংশ মৃত্যু হয়েছে মহারাষ্ট্র রাজ্যে। মৃত্যু তালিকায় দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে কর্নাটক ও তামিলনাড়ু।

এর পর রয়েছে উত্তরপ্রদেশ, অন্ধ্রপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ ও দিল্লি। পাঞ্জাব, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তীশগড়, রাজস্থান, হরিয়ানাতেও মৃত্যু সংখ্যা উল্লেখযোগ্য।

দিল্লিতে দৈনিক শনাক্ত এখনও ঊর্ধ্বমুখী। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে সাড়ে ৭ হাজারের বেশি মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। কেরালা ও মহারাষ্ট্রে দৈনিক আক্রান্ত সাড়ে ৫ হাজারের আশপাশে।

তবে কর্নাটক, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশে দৈনিক সংক্রমণ গত কয়েক দিনে অনেকটা কমেছে।

মোট আক্রান্তের হিসেবে এখনও শীর্ষে মহারাষ্ট্র। তার পর রয়েছে কর্নাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ, কেরালা, দিল্লি ও পশ্চিমবঙ্গ।

উড়িষ্যায় মোট আক্রান্ত ৩ লাখ পার হয়েছে। তেলেঙ্গানা বিহার, আসাম ও রাজস্থানেও আক্রান্ত ২ লাখ ছাড়িয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে মোট আক্রান্ত ৪ লাখ ৫ হাজার ৩১৪। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৯২০ জন। মারা গেছে ৭ হাজার ২৯৪ জন। তবে রাজ্যেটিতে সাড়ে ৩ লাখেরও বেশি রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য