মিথ্যা বলায় ট্রাম্পের বক্তব্যের প্রচার বন্ধ করে দেয় মার্কিন টিভি

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ,

 

নির্বাচনের পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম জনসমক্ষে দেয়া বক্তব্য বেশ কয়েকটি টেলিভিশন চ্যানেল সরাসরি সম্প্রচার করেনি। এই রিপাবলিকান প্রার্থী ভুল তথ্য ছড়াচ্ছেন বলে তার বক্তব্য প্রচার থেকে বিরত ছিল এসব নেটওয়ার্ক।

বৃহস্পতিবার ১৭ মিনিটের ব্ক্তব্যে হিংসাত্মক ও ভিত্তিহীন অভিযোগের বন্যা বইয়ে দেন তিনি। বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

তার বিজয় কেড়ে নিতে তার সঙ্গে প্রতারণা করা হচ্ছে বলে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ রাজ্যগুলোতে ভোট গণনা যত শেষের দিকে যাচ্ছে, ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রার্থী জো বাইডেন ততই জয়ের দিকে এগোচ্ছেন।

ট্রাম্প বলেন, তারা নির্বাচনের বিজয়কে চুরি করতে চেষ্টা করছে। ভোট শেষ হওয়ার দুদিন পর তিনি এই অস্বাভাবিক মন্তব্য করেছেন।

কিন্তু কীভাবে তার বিজয় ছিনিয়ে নেয়া হচ্ছে, তার পক্ষে কোনো প্রমাণ হাজির করতে পারেননি। এমননিক সাংবাদিকদের কাছ থেকে কোনো প্রশ্নও নেননি তিনি। এই জ্বালাময়ী বিবৃতি দিতে তিনি ১৭ মিনিট সময় নিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় এর আগে কোনো প্রেসিডেন্টের কাছ থেকে এমন অভিযোগ শোনা যায়নি।

ট্রাম্পের কথা অনুসারে, তার কাছ থেকে নির্বাচনের জয় ছিনিয়ে নিতে ডেমোক্র্যাটরা অবৈধ ভোট ব্যবহার করছেন। যদি আপনি বৈধ ভোট গণনা করেন, আমি সহজেই বিজয়ী হবো।

তিনি বলেন, তারা নির্বাচনে জালিয়াতির চেষ্টা করছেন। আমরা তা হতে দিতে পারিনা।

এ বিভাগের অন্যান্য