তুরস্কের সব পণ্য বর্জনের ডাক দিল সৌদি

তুরস্কের সব ধরনের পণ্য বর্জনের জন্য সৌদি আররেব নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে দেশটির চেম্বার অব কমার্স। সম্প্রতি তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগানের এক বক্তব্যকে কেন্দ্র করে এমন সিদ্ধান্ত নেয় সংস্থাটি।

 

সৌদি আরবের চেম্বার অব কমার্সের প্রধান আজলান আল আজলান এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘আমাদের নেতৃত্ব, আমাদের দেশ এবং আমাদের নাগরিকদের বিরুদ্ধে তুর্কি সরকারের অব্যাহত বৈরিতার প্রতিক্রিয়া হিসাবে আমদানি, বিনিয়োগ বা পর্যটন যাই হোক না কেন, প্রতিটি সৌদি- ব্যবসায়ী এবং ভোক্তার দায়িত্ব তুরস্কের সমস্ত কিছু বয়কট করা।’

 

সম্প্রতি তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান সৌদি আরবের নাম উল্লেখ নাকরে বলেন, ‌`আরব উপসাগরের কিছু দেশ তুরস্ককে টার্গেট করেছে এবং এই অঞ্চলকে অস্থিতিশীল করার নীতি অনুসরণ করছে। এরদোগানের এমন বক্তব্যের পরই সৌদি চেম্বার অব কমার্স দেশটির নাগরিকদের এমন আহ্বান জানান’।

 

এর আগে বৃহস্পতিবার পার্লামেন্টে দেওয়া ভাষণে এরদোগান বলেন, এটা ভুলে যাওয়া উচিত হবে না, যে দেশগুলোকে নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে; গতকাল সেগুলোর অস্তিত্ব ছিল না এবং সম্ভবত আগামীকালও থাকবে না। তবে আল্লাহর অনুমতিক্রমে এই অঞ্চলে আমাদের পতাকা চিরতরে উড়তে থাকবে।

 

ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে ২০১৮ ওয়াশিংটন পোস্টের কলাম লেখক সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যার পর থেকে রিয়াদের সঙ্গে আঙ্কারার সম্পর্ক খারাপ হতে থাকে।

 

তুরস্কের বর্তমান অর্থনীতি ভঙ্গুর অবস্থায় রয়েছে। সৌদি কর্তৃপক্ষ যদি এই বর্জন নীতি অনুসরণ করে তাহলে হাজার হাজার তুর্কি রফতানিকারক বিপদে পড়বেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

 

ডন অনলাইন ও গালফ নিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য