বিপদে মানুষ চেনা যায়, শাহরুখকে নিয়ে কার্তিক

সুসময়ে সবাই বন্ধু। কিন্তু দুঃসময়ে কেউ কারও নয়। বিপদেই মানুষ চেনা যায়। খারাপ দিনে মানুষের ব্যবহার থেকেই তার প্রকৃত পরিচয় পাওয়া যায়। হানড্রেড আওয়ার্স হানড্রেড স্টারসের শোয়ে এমন উপলব্ধির কথা জানান কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক।

ফিভার নেটওয়ার্কের বিশেষ উদ্যোগে আয়োজিত হয় শোটি। এতে আইপিএল দলটির মালিক বলিউড কিং শাহরুখ খানের স্বরূপ বর্ণনা করতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মালকিন বলিউড সুন্দরী প্রীতি জিনতা। টিম মালিক হিসেবে শাহরুখ ও তার মধ্যে তুলনা টানতে বলা হয়েছিল ভারতীয় উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান কার্তিককে।

জবাবে তিনি বলেন, দলের কর্ণধার হিসেবে সাফল্যে অভ্যস্ত শাহরুখ। দুবার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তার দল। কিন্তু গত কয়েক মৌসুমে আমাদের শিরোপা নেই। গতবার আমরা খারাপ খেলিনি। তবু প্লে-অফে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারিনি। তা সত্ত্বেও শাহরুখ সর্বদা আমাদের সঙ্গে ছিলেন। আমাদের সমর্থন করে গেছেন।

ডিকে বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, ব্যর্থতার দিনে আচরণ দেখে মানুষকে যথাযথ চেনা যায়। শাহরুখ সেদিক থেকে অনবদ্য। আমি অত্যন্ত ভাগ্যবান। কারণ নাইট রাইডার্সের মতো দলের হয়ে মাঠে নামতে পেরেছি এবং নেতৃত্ব দেয়ার সৌভাগ্য হয়েছে।

করোনা মহামারীর প্রকোপ থেকে বাঁচতে ভারতজুড়ে চলছে লকডাউন। এর ইতিবাচক দিক এবং সংকটময় দিনগুলো নিয়ে কার্তিক বলেন, সব কিছুরই একটি ইতিবাচক দিক থাকে। করোনা সারাবিশ্বকে একজোট করেছে। গোটা বিশ্বের মানুষ একযোগে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই চালাচ্ছেন। এই ঐক্যবদ্ধতাই পরবর্তী সময়ে মানুষের শক্তি হতে চলেছে। করোনা মানবসমাজ ও সভ্যতায় বড় ধাক্কা। এটি বুঝিয়ে দিল কঠিন সময়ে একে অপরের পাশে থাকা আমাদের কতটা দরকার।

তিনি যোগ করেন, আমি ভাগ্যবান– এমন বাজে সময়ে আমার মাথার ওপর ছাদ রয়েছে। পর্যাপ্ত খাদ্য রয়েছে। বাইরে বহু মানুষ কষ্ট পাচ্ছেন। এটি অত্যন্ত দুঃখের বিষয়।

তথ্যসূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

এ বিভাগের অন্যান্য