জয়পুরহাটে আরও ১১ জনের করোনা শনাক্ত, হাসপাতাল লকডাউন

জয়পুরহাটের কালাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন নৈশপ্রহরী-কাম-ওয়ার্ডবয়সহ ১১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জয়পুরহাট জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৯ জনে।

এ ঘটনার পর কালাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লকডাউন করা হয়েছে।

সোমবার রাত সাড়ে ১০টা থেকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি (হাসপাতাল) লকডাউন করা হয়।

জানা যায়, করোনা আক্রান্ত ওই নৈশপ্রহরী কালাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হাসপাতালে একই সঙ্গে ওয়ার্ডবয়েরও দায়িত্ব পালন করতেন। সে কারণে চিকিৎসক, রোগী ও রোগীর সঙ্গের লোকজন তার সান্নিধ্যে আসেন। সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি (হাসপাতাল) লকডাউন করা হয়।

মঙ্গলবার পরীক্ষার জন্য আরও ১২৬ জনের নমুনা ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেলিম মিঞা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, কালাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নৈশপ্রহরীর গার্মেন্টসকর্মী ভগ্নিপতি কয়েক দিন আগে নারায়ণগঞ্জ থেকে বাড়ি আসেন। দুজনের বাড়ি পাশাপাশি হওয়ায় তার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানোর পর সোমবার রাতে আসা রিপোর্টে তার শরীরে করোনার পজিটিভ পাওয়া গেছে।

এ ছাড়া করোনা শনাক্ত হওয়া অন্যদের মধ্যে তাবলিগ জামাত থেকে ১৭ বছর বয়সী এক যুবকসহ বাকিরা ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে এসেছেন। আক্রান্তদের সবাইকে আইসোলেশন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা জেলার আটজনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছিল। এ নিয়ে এখন জয়পুরহাট জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৯ জনে দাঁড়াল।

এ বিভাগের অন্যান্য