মোবাইলের জন্য ৫ম শ্রেণির ছাত্রকে খুন করল ১০ম শ্রেণির ছাত্র

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জ শহরতলীর তেঘরিয়া গ্রামের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র ইসমাইল হোসেন হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনের দাবি জানিয়েছে পুলিশ। বিদেশ থেকে বাবার দেওয়া মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়ার জন্যই তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে আদালতে দেওয়া ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি দিয়েছে ১০ম শ্রেণির ছাত্র শাহরিয়ার মারুফ ওরফে সাইমিন।

বুধবার রাতে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নূরুল হুদা চৌধুরীর আদালতে সাইমিনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। তার স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে রাতে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা (বিপিএ-পিপিএম)।

তিনি বলেন, গত ১০ জানুয়ারি উত্তর তেঘরিয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী ফারুক মিয়ার ছেলে ইসমাইল হোসেনকে পোদ্দারবাড়ি এলাকায় নাটক দেখার কথা বলে নিয়ে যায় প্রতিবেশী শাহরিয়ার মারুফ ওরফে সাইমিন। বিকেলে তাকে সদর উপজেলার চরহামুয়া গ্রামের পাশে খোয়াই নদীর তীরে নিয়ে হত্যার পর লাশ নদীতে ফেলে দেয়। ১৩ জানুয়ারি পুলিশ নদী থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলাম, হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুক আলীসহ গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য