শুরু হলো বিজয়ের মাস: সিলেটে বর্ণাঢ্য বিজয় শোভাযাত্রা

নিজস্ব প্রতিবেদক : আজ রোববার শুরু হলো মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত বিজয়ের মাস ডিসেম্বর। ত্রিশ লাখ শহীদ আর দু’লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমহানির বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতার সাক্ষর এবারের বিজয়ের মাস বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার সঙ্গে নানা অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে পালিত হবে।

বাংলাদেশের সুদীর্ঘ রাজনৈতিক ইতিহাসে শ্রেষ্ঠতম ঘটনা হলো ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ। সশস্ত্র স্বাধীনতা সংগ্রামের এক ঐতিহাসিক ঘটনার মধ্য দিয়ে বাঙ্গালি জাতির কয়েক হাজার বছরের সামাজিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক স্বপ্ন সাধ পূরণ হয় এ মাসে।

বাঙালি জাতির সর্বশ্রেষ্ঠ অর্জন মুক্তিযুদ্ধের অবিস্মরণীয় গৌরবদীপ্ত চূড়ান্ত বিজয় এ মাসের ১৬ ডিসেম্বর অর্জিত হয়। স্বাধীন জাতি হিসেবে সমগ্র বিশ্বে আত্মপরিচয় লাভ করে বাঙালিরা। অর্জন করে নিজস্ব ভূ-খণ্ড। আর সবুজের বুকে লাল সূর্য খচিত নিজস্ব জাতীয় পতাকা। ভাষার ভিত্তিতে যে জাতীয়তাবাদ গড়ে উঠেছিল, এক রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর বিজয়ের মাধ্যমে ঘোষিত স্বাধীনতা পূর্ণতা পায় এ দিনে।

 

 

  • সিলেটে বর্ণাঢ্য বিজয় শোভাযাত্রা

সিলেটে বিজয়ের মাস বরণে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা করা হয়েছে। রোববার (১ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শোভাযাত্রার র‌্যালিটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়।

শোভাযাত্রায় নেতৃত্ব দেন সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মো. মোস্তাফিজুর রহমান পিএএ এবং জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা সদর উদ্দিন আহমদ, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া, পুলিশ সুপার মো. ফরিদ উদ্দিন, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিত সিংহ, মুক্তিযোদ্ধা ভবতোষ রায় বর্মণ, আব্দুল খালিক, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ।

এছাড়াও সিলেট চেম্বারের সভাপতি এ টি এম শোয়েব, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহিউদ্দিন আহমেদ সেলিম, সদস্য বিজিত চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আসলাম উদ্দিনসহ বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য