সিলেট-৩ এর এমপি’র প্রচেষ্টায় এমপিওভুক্ত হলো ২০ প্রতিষ্ঠান

নিউজ ডেস্ক:  সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর প্রচেষ্টায়- দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ উপজেলার ২০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হয়েছে। এজন্য এই আসনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্টরা এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীকে বিশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

সিলেট -৩ আসনের নতুন এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলো :

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা : ইকরা আইডিয়াল হাই স্কুল, জাপান-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ স্কুল, হাজী মোহাম্মদ রাজা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়, বলদী আইডিয়াল মেমোরিয়াল হাই স্কুল, হযরত শাহজালাল (রঃ) হাই স্কুল, ইলাইগঞ্জ হিফজুল কোরআন দাখিল মাদ্রাসা, সিলাম ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা, তাফসীরুল কোরআন মাদ্রাসা, তুরুকখলা ইসলামিয়া বালিকা আলিম মাদ্রাসা, লতিফা শফি চৌধুরী মহিলা কলেজ, নুরজাহান মেমোরিয়াল মহিলা ডিগ্রী কলেজ।

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা : মশাহিদ আলী বালিকা দাখিল মাদ্রাসা, ঘিলাছড়া ইসহাকিয়া দাখিল মাদ্রাসা, মাহমুদ উস সামাদ ফারজানা চৌধুরী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ।

বালাগঞ্জ উপজেলা : ইসলামিয়া মোহাম্মদিয়া আলীম মাদ্রাসা, আজিজপুর হাই স্কুল, মৈশাসী অষ্টগ্রাম হাই স্কুল, সমিরুনন্নেছা হাই স্কুল, গহরপুর আব্দুল মতিন মহিলা একাডেমি, কালীগঞ্জ এম ইলিয়াস আলী হাই স্কুল।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ নয় বছর পর ২ হাজার ৭৩০টি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করেছে আওয়ামী লীগ সরকার। গত বুধবার দুপুরে গণভবনে এসব প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অবশ্য এমপিওভুক্তির এই সিদ্ধান্ত গত জুলাই থেকে কার্যকর হবে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এর আগে জানিয়েছে।

জানা যায়, নতুন এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অধীন স্কুল ও কলেজ রয়েছে ১ হাজার ৬৫১টি। এর মধ্যে নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় (ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি) ৪৩৯টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয় (ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি) ১০৮টি। মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম ও দশম শ্রেণি স্তরের প্রতিষ্ঠান ৮৮৭টি, উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয় ৬৮টি, কলেজ (একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণি) ৯৩টি এবং ডিগ্রি কলেজ ৫৬টি।

এ ছাড়া কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের অধীন মাদ্রাসা রয়েছে ৫৫৭টি। এর মধ্যে দাখিল স্তরের মাদ্রাসা ৩৫৮টি, আলিম স্তরের ১২৮টি, ফাজিল স্তরের ৪২টি ও কামিল স্তরের ২৯টি মাদ্রাসা রয়েছে।

পাশাপাশি নতুন এমপিওভুক্ত হয়েছে ৫২২টি কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে কৃষিবিষয়ক প্রতিষ্ঠান ৬২টি, ভোকেশনাল (স্বতন্ত্র) ৪৮টি, সংযুক্ত ভোকেশনাল প্রতিষ্ঠান ১২৯টি, বিএম স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান ১৭৫টি এবং বিএম সংযুক্ত প্রতিষ্ঠান ১০৮টি। এমপিওভুক্ত হওয়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা মাসে বেতনের মূল অংশ ও কিছু ভাতা পেয়ে থাকেন। সর্বশেষ ২০১০ সালে ১ হাজার ৬২৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়েছিল। এরপর এমপিওভুক্তির দাবিতে থেমে থেমে আন্দোলন করে আসছিলেন এমপিওভুক্ত নয় এমন বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা।

এ বিভাগের অন্যান্য