ভিডিও কলে স্বজনদের সাথে কথা বলতে পারবেন কারাবন্দিরা

নিউজ ডেস্ক: দেশের কারাগারগুলোকে নিয়ে নানা উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ‘রাখিব নিরাপদ, দেখাব আলোর পথ’ এই স্লোগান সামনে রেখে বন্দিদের নিরাপদ আটক নিশ্চিত করা হবে। সেই সাথে বন্দিরা ভিডিও কলের মাধ্যমে স্বজনের দেখা ও কথা বলার সুযোগ পাবেন। বন্দিদের সঙ্গে মানবিক আচরণ করাকেও গুরুত্ব দেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির অষ্টম বৈঠক কার্যবিবরণী থেকে এসব তথ্য পাওয়া যায়।

বৈঠকে এ কে এম মোস্তফা কামাল পাশা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা, কারাগার হবে সংশোধনাগার। এ ভিশন সামনে রেখে কারা অধিদফতর কাজ করে যাচ্ছে।’

সুখাদ্য, চিকিৎসা, আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব এবং আইনজীবীর সঙ্গে সাক্ষাতের ব্যবস্থা গ্রহণ নিশ্চিত করা হবে। কারাবন্দিদের সুনাগরিক হিসেবে সমাজে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে মোটিভেশন এবং প্রশিক্ষণও দেয়া হবে। সাংবাদিকদের এ সকল বিষয় জানিয়েছেন কারা মহাপরিদর্শক (আইজি প্রিজন্স) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম মোস্তফা কামাল পাশা।

দেশে ৬৮টি কারাগারে বন্দি ধারণক্ষমতা ৪০ হাজার ৬৬৪। বর্তমান বন্দির সংখ্যা ৮৯ হাজার ৩৯। তার মধ্যে বিচারাধীন বন্দির সংখ্যা ৭১ হাজার ৩৫৯।

এ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, জেলখানার সমস্যা দীর্ঘদিনের। কাশিমপুর কারাগারে স্বয়ংসম্পূর্ণ হাসপাতাল স্থাপন করা হয়েছে। কিন্তু স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে ডাক্তার পদায়ন করা হলেও ডাক্তার জয়েন করেন না। এটি সারা দেশেরই সমস্যা। এ বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনার প্রেক্ষিতে পুলিশ, বিজিবি এবং কারাগারে ডাক্তার নিয়োগে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজে দাঁড়িয়ে থেকে কাজের দিকনির্দেশনা দিয়ে থাকেন। এতে জেলখানার কয়েদিরাও যথাযথ স্বাস্থ্যসেবা পাবেন। জেলখানায় যে সকল কয়েদিদের উচ্চ নিরাপত্তা দেয়া দরকার, তাদের জন্য সেভাবেই নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

এ বিভাগের অন্যান্য