গুজবে বিভ্রান্ত না হয়ে পুলিশকে জানানোর আহ্বান সিলেটের এসপির

নিউজ ডেস্ক:   “প্রিয় সিলেটবাসী, একটি স্বার্থান্বেষী মহল বিভিন্ন ব্যক্তির ফেসবুক আইডি হ্যাক করে অথবা ভুয়া ফেসবুক আইডি তৈরি করে বিভিন্ন ধরণের বিভ্রান্তিমূলক তথ্য করে প্রচার করছে এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। এরকম কিছু দৃষ্টিগোচর হলে বিভ্রান্ত না হয়ে তাৎক্ষণিকভাবে থানা পুলিশকে জানানোর জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো।”

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) রাতে সিলেটের সকল জনসাধারণকে সতর্ক করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এমনই একটি পোস্টে করেন  সিলেটের পুলিশ সুপার মো. ফরিদ উদ্দিন আহমদ পিপিএম।

একইভাবে পুলিশের এ কর্মকর্তা সোমবার (২১ অক্টোবর) রাতে আরেকটি পোস্টের মাধ্যমে সাধারণ জনগণকে কোনো গুজবে কান না দিয়ে সামাজিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে পুলিশকে সহায়তা করার আহ্বান জানান।

তিনি তার ঐ পোস্টে লিখেন, “সকল ফেসবুক ব্যবহারকারীর অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক করে বা তাদের নামে নতুন একাউন্ট খুলে বিভিন্ন পোস্ট দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে । সুতরাং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা ফেসবুক ব্যবহারের ক্ষেত্রে এই বিষয়ে সাধারণ জনগণের সচেতনতা একান্ত কাম্য। কোনো প্রকার গুজব না ছড়াতে এবং কোনো গুজবে কান না দিয়ে আইন-শৃঙ্খলা ও সামাজিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে পুলিশকে সহায়তা করার জন্য সকলের প্রতি বিশেষভাবে অনুরোধ জানাচ্ছে সিলেট জেলা পুলিশ। যে কোনো ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে নিকটস্থ থানা পুলিশকে বা ৯৯৯-এ ফোন করুন। ধন্যবাদ।”

এ ব্যাপারে সিলেটের পুলিশ সুপার মো. ফরিদ উদ্দিন আহমদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি সিলেটটুডে২৪ডটকমকে বলেন, “ ঢাকার একজন ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে, ভোলা জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) সরকার মোহাম্মদ কায়সারের ফেসবুক আইডি হ্যাকড হয়েছে। এমনকি সিলেটের কানাইঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শামসুদ্দোহা পিপিএমের ব্যক্তিগত ফেসবুকের আইডিটিও হ্যাক হয়েছে।”

তিনি বলেন, “ফেসবুকের আইডি হ্যাক করে নানা ধরণের কর্মকাণ্ড চালিয়ে দেশে অস্থিতিশীল অবস্থা তৈরি করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে একটি স্বার্থান্বেষী মহল। এমনকি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদেরও আইডি হ্যাক করা হচ্ছে।”

তাই তিনি সিলেটবাসীদের এমন গুজবে কান না দিতে এবং স্বার্থান্বেষী মহলের ছড়ানো বিভ্রান্তিমূলক তথ্যে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানান। এছাড়া এরকম কিছু দৃষ্টিগোচর হলে তাৎক্ষণিকভাবে নিকটস্থ থানা পুলিশকে অবগত করার আহ্বান জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা। একইসাথে যে কোনো ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে নিকটস্থ থানা পুলিশ অথবা ৯৯৯-এ ফোন করারও আহ্বান জানান তিনি।

একই সাথে আইন-শৃঙ্খলা ও সামাজিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে পুলিশকে সহায়তা করার জন্য সকলের প্রতি বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন সিলেটের পুলিশ সুপার মো. ফরিদ উদ্দিন আহমদ পিপিএম।

এ বিভাগের অন্যান্য