সর্বশেষ
করোনা পরীক্ষায় ফি আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত: টিআইবি         সুশান্তের পর আত্মহত্যা করলেন অভিনেতা সুশীল গৌডা         পদ্মায় নৌকাডুবির একদিন পর মিলল ২ কৃষকের লাশ, নিখোঁজ ২         শিশু সাহিত্যিক আলম তালুকদার আর নেই         একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রে         শেষ বিশেষ ফ্লাইটে ভারত থেকে ফিরলেন ১১২ বাংলাদেশি         ভার্চুয়াল ডিভিশন বেঞ্চ চালুর সিদ্ধান্ত         এবার রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখা সিলগালা         ফেভিপিরার ট্রায়ালে সুস্থ ৯৬% করোনা রোগী: বিকন         সিনিয়র সাংবাদিক রাশীদ উন নবী বাবু আর নেই         হিফজ মাদ্রাসা খোলার অনুমতি দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি         সিলেটে আরও ৩৪ জনের করোনা শনাক্ত         গোলাপগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত যুবকের মৃত্যু         পাপুল কুয়েতের নাগরিক হলে তার আসন খালি হবে: প্রধানমন্ত্রী         সুস্থের সংখা ৮০ হাজার ছাড়াল        

আমেরিকায় পরিচয়, অনলাইনে পাকিস্তানির সঙ্গে বাংলাদেশি মেয়ের বিয়ে

কনে বাংলাদেশি, বর পাকিস্তানি। যুক্তরাষ্ট্রে পরিচয় তাদের, সেই পরিচয়ের সূত্র ধরে বিয়ে সম্পন্ন হলো অনলাইনে। নভেল করোনাভাইরাসের কারণে বর-কনের হাত এক না হলেও সম্পন্ন স্থাপিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটায় বাংলাদেশের জয়পুরহাট শহরের কাশিয়াবাড়ি মহল্লায় কনের বাবার বাড়িতে অনলাইনে এই বিয়ের আয়োজন করা হয়। মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান তাদের বিয়ে পড়ান। কনে মুরসালিন সাবরিনা ওই মহল্লার বাসিন্দা ব্যাংক কর্মকর্তা মোজাফফর হোসেনের মেয়ে। আর বর পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের বাসিন্দা বিল্লাল হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ উমের।

কনের পরিবার ও স্বজন সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সাল থেকে মুরসালিন সাবরিনা আমেরিকান অনলাইন ইউনিভার্সিটি অব দ্যা পিপলস-এ কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে পড়াশোনা করছেন। একই ইউনিভার্সিটিতে মুহাম্মদ উমেরও পড়াশোনা করছেন। ওই ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের নিজস্ব ওয়েবসাইট ‘ইয়েমার’ এর মাধ্যমে দুজনের পরিচয় হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তারা দুজন বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। ২০১৯ সালে উভয়ের পরিবার কথাটি জানতে পারে। প্রথমে মুরসালিন সাবরিনার পরিবার সম্মতি দেয়নি। পরে ছেলের পারিবারিক অবস্থা খোঁজ খবর নিয়ে মোজাফফর হোসেন মেয়েকে মুহাম্মদ উমের সঙ্গে বিয়ে দিতে রাজি হন। মুহাম্মদ উমেরের পরিবারও তাতে রাজি হয়।

পাকিস্তান থেকে মুহাম্মদ উমের ও তার পরিবার বাংলাদেশের জয়পুরহাট আসার জন্য ভিসা আবেদন করেন। মার্চ মাসে তাদের বিয়ের করার কথা ছিল। করোনাভাইরাসের কারণে তাদের সিদ্ধান্ত ভেস্তে যায়। পরে উভয় পক্ষ অনলাইনে বিয়ের জন্য একমত হয়। বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটার দিকে কনের বাড়িতে অনলাইনে বিয়ে পড়ানো হয়।

কনে মুরসালিন সাবরিনার বাবা মোজাফ্ফর হোসেন বলেন, পাকিস্তানি ছেলের সঙ্গে আমার মেয়ের বিয়ে দিয়েছি। দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে জামাই এসে মেয়ে নিয়ে যাবেন।






Related News

  • সিলেট শাহজালাল ভার্সিটির পাশে কয়েকটি প্লট বিক্রয় হবে
  • ইংল্যান্ডে আইএটিইএফএল সম্মেলনে যোগ দিচ্ছেন প্রণব
  • বাংলাদেশের পুলিশ শান্তি নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলার প্রতীক: জেদান আল মুসা
  • ড. একে আবদুল মোমেন’র বর্ণাঢ্য জীবন
  • নতুন প্রজন্মের সঠিক বিকাশের লক্ষ্যে
  • কমার্স কলেজ পরিদর্শন করলেন জাতিসংঘের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ কে আব্দুল মোমেন
  • ৪০তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, পদ ১৯০৩
  • আত্মবিশ্বাস কোথায়? স্বপ্নপূরণের পথেও এগিয়ে যাওয়া
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *