বৃহস্পতিবার, ০১ আগ ২০১৯ ০৭:০৮ ঘণ্টা

শাবিতে বাংলাদেশের প্রথম ‘স্মার্ট ল্যাব অটোমেশন সেবা’

শাবিতে বাংলাদেশের প্রথম ‘স্মার্ট ল্যাব অটোমেশন সেবা’

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো বানিজ্যিক সেবাদানের লক্ষে চালু হলো অত্যাধুনিক সুবিধাযুক্ত এবং স্বয়ংক্রিয় ল্যাব ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম ‘স্মার্ট ল্যাব অটোমেশন’। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধীনস্থ সেন্টার ফর রিসার্চ টেস্টিং অ্যান্ড কনসালটেন্সি (সিআরটিসি) এ পদ্ধতির উদ্ভাবন করেছে।

স্মার্ট ল্যাব অটোমেশনের মাধ্যমে মূলত পানি, বাতাস, মাটি ও ট্রান্সপোর্টেশনের যাবতীয় বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয় এবং এই পরীক্ষার ফলাফল অনলাইনে মাধ্যমে গ্রাহককে প্রধান করা হয়।

এছাড়া যে কোন গ্রাহক ঘরে বসে অনলাইনে কাজের আদেশ এবং টাকা পরিশোধ করতে পারবেন।

বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) দুপুর ১টায় বিশ^বিদ্যালয় প্রেসক্লাবে এক প্রেস কনফারেন্সে এই তথ্য নিশ্চিত করেন কোঅর্ডিনেটর (সিআরটিসি) ও বিশ^বিদ্যালয়ের সিভিল এন্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং (সিইই)বিভাগের অধ্যাপক ড. মো ইমরান কবির।

এসময় তিনি বলেন, ‘স্মার্ট ল্যাব অটোমেশন’ অধীনে চারটি সেবা দেওয়া হবে। মাটি, পানি, বাতাস ও ট্রান্সপোর্টেশনের যাবতীয় বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা এবং এর ফলাফল অনলাইনের মাধ্যমে প্রধান করা হবে।

এছাড়া বিভিন্ন ধরণের নির্মাণ সামগ্রী যেমন, সিমেন্ট, বালু, পাথরসহ নির্মাণ সামগ্রী ও রাস্তার বেজ নির্মাণের সামগ্রীর যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। এদিকে পরীক্ষা নিরীক্ষার রিপোর্ট প্রদান ও কাজ নেওয়া হয় অনলাইনে। যেখানে ঘরে বসেই গ্রাহকেরা এ সেবা নিতে পারবেন বলে জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, অসাধু উদ্দেশ্যে নকল রিপোর্ট বা রিপোর্টে পরিবর্তন সংক্রান্ত জালিয়াতি প্রতিরোধ করা শাবি সিইই সিআরটিসির মূল উদ্দেশ্য। আমাদের টেস্টের পর রিপোর্টে স্বতন্ত্র কোড ব্যবহার করা হয়। এছাড়া এর পাশাপাশি কিউআরকোড দেওয়া হয় ফলে স্মার্টফোনের সাহায্যে স্ক্যান করে অথবা ওয়েবসাইটে রিপোর্ট যাচাই বাছাই করার সুযোগ রয়েছে। ফলে অসাধু উদ্দেশ্যে নির্মাণের রিপোর্ট পরিবর্তন জালিয়াতি রোধ করা সম্ভব হবে। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা এ সেবার অধীনে উপকৃত হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, অনলাইনে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সেবার অধীনে এ সেবা দেশ বিদেশের যেকোন স্থান থেকে গ্রাহকেরা নিতে পারবেন। যেখানে কাজের জন্য সিআরটিসি কনসালটেন্সি প্রদানে এক্সপার্টও নিয়োজিত করে থাকে। শাবি সিইই সিআটিসির মূল কাজ হলো বাণিজ্যিকভাবে নির্মাণ কাজের বিভিন্ন ধরণের টেস্টিং ও কনসালটেন্সি সেবা প্রদান করা।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সিইই সিআরটিসি ডিরেক্টর অধ্যাপক ড. জহির বিন আলম, চেয়্যারম্যান অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আজিজুল হক, সিইই বিভাগের অধ্যাপক ড. মুশতাক আহমেদ ও সহকারী অধ্যাপক মো. আমিনুল ইসলাম, টেকনেক্সট লিমিটেড এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ইঞ্জি. সৈয়দ রেজওয়ানুল হক প্রমুখ।

উল্লেখ্য, দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে এ সিআরটিসি সেবা চালু থাকলেও স্মার্ট ল্যাব অটোমেশন সেবা শুধুমাত্র শাবিতে গত ২৫ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এ অটোমেশন সেবার উদ্বোধন করেন। মূলত ২০০৪ সাল থেকে শাবির সিইই বিভাগের অধীনে সিআরটিসির কার্যক্রম শুরু হয়। এছাড়া নিজস্ব পরিধিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, আর্কিটেকটার বিভাগ, রসায়ন বিভাগ ও কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড পলিমার সায়েন্স বিভাগেও সিআরটিসি সেবা চালু রয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

পাঠক

Flag Counter