বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০১৯ ০৭:০৩ ঘণ্টা

বিশ্বনাথে নৌকায় ভোট চাইলেন মুহিত

বিশ্বনাথে নৌকায় ভোট চাইলেন মুহিত

স্টাফ রিপোর্ট :: আসন্ন বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী এসএম নুনু মিয়ার নৌকা প্রতিকে ভোট চাইলেন সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত নির্বাচনী পথসভায় ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করেন তিনি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুহিত বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে ২০৪০সালের মধ্যেই দেশ একটি উন্নত দেশ হিসেবে পরিনত হবে। সারাদেশের প্রতিটি অঞ্চলে ব্যাপক উন্নয়ন হলেও বিশ্বনাথে তেমন কোন উন্নয়ন হয়নি। কারণ বিএনপি প্রার্থী বিগত ৫ বছরে একদিনের জন্য জনগণের পাশে আসেননি, এদের জনগণ চেনে না।

তিনি আরো বলেন, এখানে দল কাকে মনোনয়ন দিয়েছে তা বড় বিষয় নয়, বড় বিষয় হচ্ছে নৌকা বিজয় হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নৌকার বিজয় হবে। তাই বিশ্বনাথ উপজেলার উন্নয়নের স্বার্থে আগামী ১৮ তারিখ উন্নয়নের প্রতীক নৌকায় ভোট দিয়ে এসএম নুনু মিয়াকে জয়যুক্ত করুন। নুনু মিয়ার সম্পর্কে তিনি বলেন, ২০০১ সালে তার পরিচয় তখন থেকে আওয়ামী লীগে যোগ দেন। নুনু মিয়া খুব পাশের মানুষ তাঁর। নুনু মিয়া অসম্ভব একজন ভাল মানুষ।

তিনি আরো বলেন, উপজেলার উন্নয়নের স্বার্থে নৌকার পাশাপাশি আওয়ামী লীগের সমর্থিত ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আলতাব হোসেনকে তালা মার্কায় ও জুলিয়া বেগমকে কলস মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান বলেন, এসএম নুনু মিয়া প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনার একজন প্রিয়ভাজন ব্যাক্তি। আবুল মাল আব্দুল মুহিতের ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেনের এক প্রিয়জন। নুনু মিয়াকে নির্বাচিত করলে নি:সন্দেহে এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন সম্ভব হবে।

নুনু মিয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, নৌকার প্রার্থী নুনু মিয়া একজন সরল সহজ ব্যাক্তি। তাই তাকে নৌকায় ভোট দিয়ে উন্নয়নের জন্য বিজয়ী করুন। পাশাপাশি আওয়ামী লীগের সমর্থিত ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আলতাব হোসেনকে তালা মার্কায় ও জুলিয়া বেগমকে কলস মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার আহবান জানান তিনি।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, উন্নয়নের মার্কা হলো নৌকা। তাই নেওকা ছাড়া উন্নয়ন সম্ভব নয়। উপজেলার উন্নয়নের স্বার্থে নৌকাকেই বিজয়ী করতে হবে। তিনি উপজেলা প্রটিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে নেতাকর্মিদের নৌকার পক্ষে প্রচারণায় ঝাঁপিয়ে পড়তে আহবান জানান।

উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহ ফরিদ উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মশাহিদ আলী।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পংকি খানের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম-সম্পাদক আমির আলী চেয়ারম্যান ও সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আজিজ সুমনের যৌথ পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী এসএম নুনু মিয়া। তার কান্না জড়িত বক্তব্যে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন উপস্থিত নেতারা। এসময় নৌকা শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে সভাস্থল।

সভায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন-আহবায়ক আলতাব হোসেন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী জুলিয়া বেগম তাদের প্রতীকে ভোট চেয়ে বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন, দৌলতপুর আ’লীগের সভাপতি আরিফ উল্লাহ সিতাব।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, মহানগর আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক তপন মিত্র, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহ আসাদুজ্জামান, সমছু মিয়া, আসাদ্দুজ্জামান আসাদ, যুগ্ম-সম্পাদক শাহ ফরিদ আহমদ সেবুল, রামপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ আলমগীর, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি ছোরাব আলী, উপজেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান, উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আতিকুর রহমান আতিক, উপজেলা যুবলীগ নেতা কামরুজ্জামান সেবুল, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মুহিবুর রহমান সুইট, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সোহেল আহমদ মুন্না, উপজেলা ছাত্র লীগের সভাপতি শীতল বৈদ্য, যুগ্ম সম্পাদক শাহ বুরহান আহমদ রুবেল, সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের আহমদ জয়, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মিহাদ আহমদ প্রমূখ।

সর্বশেষ সংবাদ

পাঠক

Flag Counter