বুধবার, ১৬ জানু ২০১৯ ১১:০১ ঘণ্টা

সিলেটে ক্রিকেট লীগ না হওয়ায় জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক রাজিন সালেহ’র উদ্বেগ

সিলেটে ক্রিকেট লীগ না হওয়ায় জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক রাজিন সালেহ’র উদ্বেগ

সিলেটে ক্রিকেট লীগ না হওয়ায় জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক রাজিন সালেহ’র উদ্বেগ

প্রতি বছর জানুয়ারি-ফেব্র“য়ারিতে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে ক্রিকেট লীগ অনুষ্ঠিত হয়। সিলেটের চার জেলার খেলোয়াড়রা ওই লীগে অংশগ্রহণ করে। ভাল পারফরমেন্সের ফলে তারা দক্ষ খেলোয়াড় গড়ে উঠে। যারা জাতীয় দলেও খেলার সুযোগ পায়।
কিন্তু এ বছর সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে ক্রিকেট লীগ অনুষ্ঠিত হবে না। কারণ- বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন মাঠটি শেখ রাসেলকে বরাদ্দ দিয়েছে। তাই এবার ক্রিকেটের মৌসুমে ওই মাঠে ফুটবল অনুষ্ঠিত হবে। ওই মাঠে ক্রিকেটের মৌসুমে ফুটবল খেলা না দেয়ার জন্য সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে বাফুফের কাছে লিখিত আবেদন করা হয়েছে। তবুও কোন কাজ হয়নি।
তাছাড়া সিলেট জেলা স্টেডিয়াম ছাড়া আর কোন ভ্যানু না থাকায় এবার আর ক্রিকেট লীগ হবে না বলে জানিয়েছেন সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) এর কার্যনির্বাহী সদস্য মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম।

এদিকে- সিলেট জেলা স্টেডিয়াম ফুটবলের দখলে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক সিলেটের কৃতি সন্তান রাজিন সালেহ। তিনি বুধবার এ প্রতিবেদকের কাছে দুঃখপ্রকাশ করে বলেন, দীর্ঘদিন থেকে সিলেট ক্রীড়াঙ্গণে অনেকটা পিছিয়ে রয়েছে। দেশের প্রতিটি জেলা ও বিভাগ থেকে খেলোয়াড়রা জাতীয় দলে সুযোগ পেয়ে সম্মান অর্জন করেছে। স্থানীয়ভাবে ক্রিকেট লীগের পরিবেশ সৃষ্টি করায় তারা ঘরোয়া পরিবেশে ভাল পারফরমেন্স দেখিয়ে জাতীয় দলে সুযোগ পায়। কিন্তু সিলেট ওইসব কারণে অনেকটা পিছিয়ে রয়েছে।
তিনি বলেন, প্রতি বছর সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে ক্রিকেট লীগ হয়। যার ফলে সিলেটের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে খেলোয়াড়রা উঠে আসে। ভাল খেলে তারা দর্শক মাতায় ও ক্রীড়াঙ্গণে বেশ সুনাম অর্জন করে। এক সময় তাদেরকে জাতীয় দলে সুযোগ দেওয়া হয়। কিন্তু সিলেটে এবার ক্রিকেট লীগ না হওয়ায় বঞ্চিত রয়েছে স্থানীয় খেলোয়াড়রা।
তিনি বলেন, বাফুফে চাইলে সিলেট জেলা স্টেডিয়াম বরাদ্দ না দিলেও পারতো। এখানে ঘরোয়া পরিবেশে ক্রিকেট অনুষ্ঠিত হয়। তবুও দেশের অন্যান্য স্টেডিয়াম বরাদ্দ না দিয়ে সিলেট স্টেডিয়াম বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক।
তিনি বলেন, এভাবে নানা অজুহাতে ক্রিকেট লীগ অনুষ্ঠিত না হলে, এক সময় সিলেটের খেলোয়াড়রা মনোবল হারিয়ে ফেলবে। তারা আর খেলতে আগ্রহ প্রকাশ করবেনা। একজন ভালো খেলোয়াড়ের উদ্দেশ্যে থাকে জাতীয় দলে খেলা। কিন্তু সে সুযোগ থেকে তারা বঞ্চিত হলে অদূঢ় ভবিষ্যতে সিলেট থেকে আর কোন খেলোয়াড় জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পাবেনা বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
জাতীয় দলের সাবেক এ অধিনায়ক সব সময় চান সিলেটে ক্রীড়াঙ্গণে অনেক এগিয়ে যাক। জাতীয় দলে সিলেটী খেলোয়াড় হিসেবে অনেকে খেলুক। সিলেটের সুনাম অর্জন করুক। কিন্তু বর্তমানে এটা আর সম্ভব হচ্ছে না। নানা কারণে, নানা অজুহাতে সিলেটের স্থানীয় খেলোয়াড়রা বঞ্চিত রয়েছে লীগ থেকে।

সিলেটের ক্রীড়াঙ্গণে যারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের কাছে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক রাজিন সালেহ অনুরোধ জানিয়েছেন- সিলেট জেলা স্টেডিয়ামটি ক্রিকেটের জন্য উন্মুক্ত করে দিতে। যাতে করে সিলেট থেকে ভাল খেলোয়াড়রা গড়ে উঠে জাতীয় দলে সুযোগ পায় এবং সিলেট সহ দেশের সুনাম বৃদ্ধি করে।

সর্বশেষ সংবাদ

পাঠক

Flag Counter