বুধবার, ১৬ জানু ২০১৯ ০৯:০১ ঘণ্টা

উপজেলা নির্বাচনে কোম্পানিগঞ্জে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চান শাহজাহান চৌধুরী

উপজেলা নির্বাচনে কোম্পানিগঞ্জে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চান শাহজাহান চৌধুরী

এবার পাঁচ ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মার্চের প্রথম সপ্তাহ থেকে বিভাগভিত্তিক ভোট নেয়া হবে। আট বিভাগে চার ধাপে এবং অবশিষ্টগুলোর মেয়াদ শেষ হলে একসঙ্গে ভোট হবে। সদর উপজেলার সব কেন্দ্রে ভোট হবে ইভিএমে। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে বিস্তারিত তফসিল ঘোষণা হবে মার্চে নির্বাচন এমন তথ্য জানিয়েছে ইসি, নির্বাচন কমিশনের এমন তাগিদে, এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেষ হতে না হতে  সিলেটের উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কে সামনে রেখে দলীয় মনোনয়ন পেতে ইতিমধ্যে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন প্রার্থীর।  এবার সিলেটের   কোম্পানিগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চান তরুণ সমাজসেবক বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের মেধাবী আইনজীবী ও কোম্পানিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সফল সভাপতি এডভোকেট মো.শাহজাহান চৌধুরী, জানাযায় তিনি একাদশ সংসদ নির্বাচনে সিলেট ৪ আসন থেকে প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন কিন্তু প্রধান মন্ত্রী শেখহাসিনার কথায় তার মনোননয় প্রত্যাহার করেন। সূত্রবলছে উপজলো নির্বাচনে এবার তিনি সরব হয়ে মাঠে প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত তার পক্ষে তৃণমূল  সর্বস্তরেরনেতাকর্মীরা পোস্টার-ব্যানার ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্নভাবে তাদের পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে জানান দিচ্ছে তার সাথে তারা মাঠে ময়দানে একাট্রা এছাড়া তিনি জানান মনোনয়নের জন্য  দলীয় উচ্চ পর্যায়েও যোগাযোগ করছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন অনেকে তবে এবার তাকে উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে প্রার্থী  করার জোর দাবি জানিয়েছেন কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধিরা। বিগত উপজেলা নির্বাচনে ১ম বারের মত চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়ে দ্বিতীয় অবস্থান রেখে চমক সৃষ্টি করে এবার ব্যাপক আলোচনায় রয়েছেন এই নেতা। এলাকার সাধারন মানুষ মনে করেন তাকে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী করা হলে অনায়াসে বিজয়ী হতে পারবেন বলে তৃণমূল জনগণের প্রত্যাশা। বিগত দিনে বিএনপি জামাতের রাজনীতিতে নির্যাতিত হওয়া শাহজাহান কে এবার দলীয় মনোনয়ন দিয়ে তৃণমূল কে শক্তিশালি করার আহবান জানান উপজেলার সর্বস্থরের নাগরিকবৃন্দ। সচেতন ভোটারদের মতে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে এডভোকেট শাহজাহান চৌধুরী সর্বাধিক বিবেচনায় একজন যোগ্য প্রার্থী। তিনি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব সফলতার সাথে পালন করতে পারবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন সবাই পাশাপাশি একজন সুদক্ষ তরুণ প্রজন্মর রাজনীতিবিদ হিসেবে এলাকায় বেশ, সুনাম রয়েছে তার। বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত হয়ে সমাজসেবী হিসেবে অবদান রেখে যাচ্ছেন। সময়োপযোগি নেতৃত্বের মাধ্যমে আইনপেশার সাথে জড়িত হয়ে দেশ ও সমাজের মাঝে শিক্ষা ও প্রশিক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে যাচ্ছেন। প্রতি বছর শিক্ষা মুলক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণীর মাধ্যমে শিক্ষা বিস্তারের পাশাপাশি অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে তিনি সোচ্চার ভূমিকা পালন করে আসছেন। এডভোকেট শাহজাহান চৌধুরীঅবহেলিত, বঞ্চিত মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে তাঁর কর্ম প্রচেষ্ঠায় সবার সহযোগিতা কামনা করেন। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে এডভোকেট শাহজাহান চৌধুরী বলেন, আগামী কোম্পানিগন্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকার কান্ডারী হতে চাই। তিনি বলেন, দলীয়ভাবে মনোনয়ন পেলে নির্বাচন করবেন। এক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা বড়ই প্রয়োজন। এডভোকেট শাহজাহান চৌধুরী বলেন, ছোট বেলা থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে আসছি। আশা করছি আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমাকে দলীয়ভাবে মনোনিত করা হবে বলে বিশ্বাস করি। সেই বিশ্বাস রেখেই আমি কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। আমি অবহেলিত মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। ছোট বেলা থেকেই তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ নিয়ে, ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পরি।

সর্বশেষ সংবাদ

পাঠক

Flag Counter