সর্বশেষ
মদিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশি নিহত, আহত ২         সুনামগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিআরটিসি বাস খাদে, আহত ২০         ডিসি অফিসের নিচ থেকে গাড়ী চুরি, শ্রীমঙ্গলে উদ্ধার         পবিত্র শবে মেরাজ ২২ মার্চ         বিয়ানীবাজারে সেতুর অভাবে দুর্ভোগে অর্ধ লক্ষাধিক মানুষ         ডাবল সেঞ্চুরিতে ভিন্ন উদযাপনের কারণ জানালেন মুশফিক         জুলাইয়ে শুরু হবে ঢাকা-সিলেট ৬ লেনের কাজ         গ্রিসে ফয়ছলের লাশ, একনজর দেখার আকুতি বৃদ্ধ মা-বাবার         সুনামগঞ্জে হাওর উৎসবে আসছেন রাষ্ট্রপতি         মৌলভীবাজারে শরীরে আঘাত ও ট্যাটু আঁকা লাশ উদ্ধার         মেট্রোপলিটনসহ দুই বিশ্ববিদ্যালয়কে ২০ লাখ টাকা জরিমানা         চুরির অপবাদ সইতে না পেরে যুবকের আত্মহত্যা         কুলাউড়ায় যুব‌কের লাশ উদ্ধার, প‌রিবা‌রের দা‌বি আত্মহত্যা         ওসমানী বিমানবন্দরে শিক্ষামন্ত্রীকে স্বাগত জানালেন সিলেট আ.লীগ নেতারা         ২৬৫ রানে অল আউট জিম্বাবুয়ে        

দেশের সবচেয়ে বজ্রপাতপ্রবণ এলাকা সুনামগঞ্জ ৮ দিনে ১৯ জনের মৃত্যু

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে বিশ্বে  বেড়েছে বজ্রপাতের পরিমাণ। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বজ্রপাতপ্রবণ এলাকার তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশ। আর এ শীর্ষস্থানটি দখল করে রেখেছে সিলেটে সুনামগঞ্জ। তবে শীর্ষস্থানে থাকাটা সব সময় যে গৌরবের হয় না, তার সচেয়ে বড় উদাহরণ সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জ জেলা। হাওরের বাঁধ ভেঙে ফসল বিপর্যয়ে পড়া এই জেলার আরেক বিপর্যয়ের নাম বজ্রপাত।

গত ৮ দিনের পরিসংখ্যানে দেশের সবচেয়ে বেশি বজ্রপাত রেকর্ড করা হয় সুনামগঞ্জে। আর এতে মারা যান ১৯ জনের বেশি মানুষ। এছাড়া শুধু গতকাল মঙ্গলবারেই সুনামগঞ্জের তিন উপজেলায় তিন কৃষক ও দুই কৃষাণি নিহত এবং আরও সাতজন আহত হয়েছেন। এদিকে বজ্রপাতে নিহতদের তালিকার বেশিরভাগই রয়েছেন কৃষক।

গত ৮ দিনের এ পরিসংখ্যান সিলেটটুডে২৪কে নিশ্চিত করেন সুনামগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন মিরা। তিনি বলেন, চলতি মাসের বজ্রপাতে শুধু সুনামগঞ্জ জেলাতেই ১৯ জনের প্রাণহানি হয়েছে। যাদের মধ্যে অধিকাংশই কৃষক।

বজ্রপাত গবেষক ও বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. এমএ ফারুখ বলেন, সুনামগঞ্জের উত্তরে মেঘালয় ও খাসিয়া পাহাড় রয়েছে। ওইদিক থেকে আসা ঠাণ্ডা ও শুকনো বাতাস এবং দক্ষিণের গরম ও ভেজা বাতাসের সঙ্গে সংমিশ্রণ হয়ে বজ্রপাত তৈরির অনুকূল পরিবেশ তৈরি করে। এ জন্য সুনামগঞ্জে বজ্রপাত বেশি হয়।

সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, সুনামগঞ্জই দেশের বজ্রপাতপ্রবণ জেলা। সাম্প্রতিককালে হাওরে বজ্রপাত বেড়ে যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, হাওরের বড় বড় বৃক্ষ কেটে ফেলা হয়েছে। এক সময় উঁচু গাছে গিয়ে বজ্র পড়ত। পৃথিবীব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এ কারণেও বজ্রপাত বেশি হচ্ছে।

তার মতে, বজ্রপাত প্রতিরোধে জমির সীমানায় ৩০ ফুট দূরত্বে তাল এবং মাঝখানে সুপারি গাছ লাগানো যেতে পারে। এই তালগাছগুলো বজ্রপাত প্রতিরোধের মতো উচ্চতাসম্পন্ন হতে কমপক্ষে ১৬ বছর লাগবে।

তিনি আরও বলেন, বজ্রপাতের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। যে কোনো সময় হতে পারে। বজ্রপাতের সংখ্যা নিরোধন প্রযুক্তিও বাংলাদেশে ব্যবহৃত হচ্ছে না। বায়ু দূষণে তাপমাত্রা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বজ্রপাত বাড়ার সম্পর্ক রয়েছে। এবার জুন-জুলাইয়ে অন্যান্য বছরের চেয়ে তাপমাত্রা বেশি হতে পারে। সে ক্ষেত্রে বজ্রপাত বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। বজ্রপাতপ্রবণ এলাকার মধ্যে মৌলভীবাজার, শ্রীমঙ্গল, কিশোরগঞ্জ ও নেত্রকোনা রয়েছে বলে জানান তিনি।






Related News

  • ডিসি অফিসের নিচ থেকে গাড়ী চুরি, শ্রীমঙ্গলে উদ্ধার
  • পবিত্র শবে মেরাজ ২২ মার্চ
  • বিয়ানীবাজারে সেতুর অভাবে দুর্ভোগে অর্ধ লক্ষাধিক মানুষ
  • জুলাইয়ে শুরু হবে ঢাকা-সিলেট ৬ লেনের কাজ
  • গ্রিসে ফয়ছলের লাশ, একনজর দেখার আকুতি বৃদ্ধ মা-বাবার
  • সুনামগঞ্জে হাওর উৎসবে আসছেন রাষ্ট্রপতি
  • মৌলভীবাজারে শরীরে আঘাত ও ট্যাটু আঁকা লাশ উদ্ধার
  • মেট্রোপলিটনসহ দুই বিশ্ববিদ্যালয়কে ২০ লাখ টাকা জরিমানা
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *