সর্বশেষ
মদিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশি নিহত, আহত ২         সুনামগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিআরটিসি বাস খাদে, আহত ২০         ডিসি অফিসের নিচ থেকে গাড়ী চুরি, শ্রীমঙ্গলে উদ্ধার         পবিত্র শবে মেরাজ ২২ মার্চ         বিয়ানীবাজারে সেতুর অভাবে দুর্ভোগে অর্ধ লক্ষাধিক মানুষ         ডাবল সেঞ্চুরিতে ভিন্ন উদযাপনের কারণ জানালেন মুশফিক         জুলাইয়ে শুরু হবে ঢাকা-সিলেট ৬ লেনের কাজ         গ্রিসে ফয়ছলের লাশ, একনজর দেখার আকুতি বৃদ্ধ মা-বাবার         সুনামগঞ্জে হাওর উৎসবে আসছেন রাষ্ট্রপতি         মৌলভীবাজারে শরীরে আঘাত ও ট্যাটু আঁকা লাশ উদ্ধার         মেট্রোপলিটনসহ দুই বিশ্ববিদ্যালয়কে ২০ লাখ টাকা জরিমানা         চুরির অপবাদ সইতে না পেরে যুবকের আত্মহত্যা         কুলাউড়ায় যুব‌কের লাশ উদ্ধার, প‌রিবা‌রের দা‌বি আত্মহত্যা         ওসমানী বিমানবন্দরে শিক্ষামন্ত্রীকে স্বাগত জানালেন সিলেট আ.লীগ নেতারা         ২৬৫ রানে অল আউট জিম্বাবুয়ে        

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন ১৩ মে থেকে

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য আবেদন গ্রহণ শুরু হবে ১৩ মে। আবেদন করা যাবে ২৪ মে পর্যন্ত। আগামী ১ জুলাই থেকে শুরু হবে ক্লাস।

সোমবার (৭ মে) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এর আগের দিন রোববার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়।

এবারও একাদশ শ্রেণিতে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। ভর্তির জন্য একজন শিক্ষার্থীকে অনলাইনে কমপক্ষে পাঁচটি ও সর্বোচ্চ ১০টি কলেজ বা সমমানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য পছন্দক্রম দিয়ে আবেদন করতে হবে। এর মধ্যে শিক্ষার্থীর ফল ও পছন্দক্রমের ভিত্তিতে একটি প্রতিষ্ঠানে ভর্তির জন্য নির্বাচন করে দেওয়া হবে।

অনলাইনে আবেদন করতে হবে www.xiclassadmission.gov.bd ঠিকানায়। এসএমএস করতে হবে টেলিটক মোবাইলের মাধ্যমে। অনলাইনে ১৫০ টাকা দিয়েই ৫ থেকে সর্বোচ্চ ১০টি কলেজে আবেদন করা যাবে। তবে এসএমএসের জন্য প্রতি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য ১২০ টাকা করে ফি দিতে হবে।

প্রথম পর্যায়ে ১৩ মে থেকে ২৪ মে পর্যন্ত আবেদন করতে হবে। তবে ফল পুনর্নিরীক্ষণে যাদের ফল পরিবর্তন হবে, তাদের আবেদন আগামী ৫ ও ৬ জুন গ্রহণ করা হবে। প্রথম পর্যায়ে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে ১০ জুন। এবার শিক্ষার্থী ভর্তির নিশ্চায়ন না করলে নির্বাচন ও আবেদন বাতিল হবে।

এরপর দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ করা হবে ১৯ ও ২০ জুন। দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে ২১ জুন। তৃতীয় পর্যায়ে আবেদন গ্রহণ করা হবে ২৪ জুন। এই পর্যায়ের ফল প্রকাশ হবে ২৫ জুন। প্রতিষ্ঠান পরিবর্তনসহ (মাইগ্রেশন) অন্যান্য কাজ শেষ করে ২৭ জুন থেকে ৩০ জুনের মধ্যে ভর্তির কাজ শেষ করা হবে।

এবার বিভাগীয় ও জেলা সদরের কলেজ বা সমমানের প্রতিষ্ঠানে শতভাগ আসন মেধার ভিত্তিতে ভর্তি করা হবে। তবে মেধার ভিত্তিতে ভর্তির পর যদি বিশেষ অগ্রাধিকার কোটার কোনো আবেদনকারী থাকে, তাহলে মোট আসনের অতিরিক্ত হিসেবে নির্ধারিত কোটায় শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে। বিভিন্ন ধরনের অগ্রাধিকার কোটা আছে ১১ শতাংশ। তবে এবার এসব কোটায় যদি প্রার্থী না পাওয়া যায়, তবে এ আসনগুলোর আর কার্যকারিতা থাকবে না। আগে এসব কোটায় প্রার্থী না পাওয়া গেলে আসনগুলো সাধারণ কোটার প্রার্থীদের দিয়ে পূরণ করা হতো।

স্কুল অ্যান্ড কলেজের ক্ষেত্রে নিজ প্রতিষ্ঠান থেকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস করা শিক্ষার্থীরা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ভর্তি হবে। এলাকাভেদে ভর্তির ফিও নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে।






Related News

  • ডিসি অফিসের নিচ থেকে গাড়ী চুরি, শ্রীমঙ্গলে উদ্ধার
  • পবিত্র শবে মেরাজ ২২ মার্চ
  • বিয়ানীবাজারে সেতুর অভাবে দুর্ভোগে অর্ধ লক্ষাধিক মানুষ
  • জুলাইয়ে শুরু হবে ঢাকা-সিলেট ৬ লেনের কাজ
  • গ্রিসে ফয়ছলের লাশ, একনজর দেখার আকুতি বৃদ্ধ মা-বাবার
  • সুনামগঞ্জে হাওর উৎসবে আসছেন রাষ্ট্রপতি
  • মৌলভীবাজারে শরীরে আঘাত ও ট্যাটু আঁকা লাশ উদ্ধার
  • মেট্রোপলিটনসহ দুই বিশ্ববিদ্যালয়কে ২০ লাখ টাকা জরিমানা
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *